নারী বিদ্রোহীদের যৌনাঙ্গে গুলির নির্দেশ দুতের্তের!

|

বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে প্রায়ই খবরের শিরোনাম হন। সম্প্রতি আগ্রাসী এবং নারীবিদ্বেষী মন্তব্য করে বিতর্কের ঝড় তুলেছেন তিনি। বিশ্লেষকরা বলছেন, গত সপ্তাহে সৈন্যদের উদ্দেশ্যে দেয়া তার একটি নির্দেশনা অতীতের সকল বিতর্কিত বক্তব্যকে ছাড়িয়ে গেছে। ৭ই ফেব্রুয়ারি এক দল প্রাক্তন কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের এক সভায় তিনি বলেন, ‘যুদ্ধরত নারী বিদ্রোহীদের গিয়ে বলুন আমার নির্দেশে তাদের হত্যা করা হবে না। কিন্তু তাদের যৌনাঙ্গে গুলি করা হবে। আর, নারীদের যৌনাঙ্গ না থাকলে তাদের কোনো মূল্য নেই।

আর্মড ফোর্সেস অফ দ্য ফিলিপিনস (এএফপি)’র সদস্যদের উৎসাহ দেয়ার জন্যই এই মন্তব্য করা হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে, প্রেসিডেন্টের গণসংযোগ দপ্তর এই বক্তব্যের নথি থেকে ‘যৌনাঙ্গ’ শব্দটি মুছে দিয়েছে।

অবশ্য, দুতের্তের মুখপাত্র হ্যারি রক দাবী করেছেন সভাস্থলে হাস্যরসের জন্যই ওই মন্তব্য। তিনি দুতের্তের পূর্বের রসিকতা করার কয়েকটি ঘটনারও উদাহরণ দেন। বিভিন্ন নারীবাদী সংগঠন এবং মানবাধিকার কর্মীরা এই বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ক্ষমতায় আসার পরই দুতের্তে দেশের সব মাদক ব্যবসায়ীদের গুলি করে হত্যার নির্দেশ দেন। এরপরই ব্যাপক আলোচনায় আসেন তিনি। তার মাদক বিরোধী পদক্ষেপে অনেকে নিহত হলেও সেসময় দুতের্তে ফিলিপিনে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply