‘ছোঁয়া পরিবহনের’ সেই বাস রুপার পরিবারকে দেয়ার নির্দেশ

|

টাঙ্গাইলে চলন্ত বাসে শিক্ষার্থী জাকিয়া সুলতানা রুপা গণধর্ষণ ও হত্যা মামলায় চার জনের ফাঁসি ও এক আসামির সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার সকাল ১১টার দিকে মামলার পাঁচ আসামি কঠোর নিরাপত্তায় আদালতে নেয়া হয়।

তাদের উপস্থিতিতে রায় পড়ে শোনান নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক। আসামিদের মধ্যে চালক হাবিবুর, হেলপার শামীম, আকরাম ও জাহাঙ্গীরের মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। আর সুপারভাইজার সফর আলীকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এছাড়া আসামিদেরকে এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ ছাড়াও ‘ছোঁয়া পরিবহনের’ সেই বাসটিকে রুপার পরিবারকে দেয়ার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। ওই বাসেই কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের  পর হত্যা করা হয়।

যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ১৭২ দিনের মধ্যে শেষ হল আলোচিত এই মামলার বিচার কাজ। গত বছরের ২৫ আগস্ট বগুড়া থেকে ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে চলন্ত বাসে রুপাকে গণধর্ষণের পর হত্যা করে আসামিরা। লাশ ফেলে দেয় পঁচিশমাইল এলাকায়।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply