গহনা বিক্রি করে টাকা না দেয়ায় হাতের কবজি কাটলো স্বামী

|

হবিগঞ্জের মাধবপুরে গহনা বিক্রি করে টাকা না দেয়ায় ফাইমা বেগম (২৩) নামে এক নারীর হাতের কবজি কেটে দিয়েছে তার স্বামী।

শুক্রবার (১২ মার্চ) সকালে এলাকাবাসী ওই নারীকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এর আগে রাতে মাধবপুর উপজেলার পিয়াম গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। তিনি ওই গ্রামের শামীম মিয়ার স্ত্রী। ফাইমার বাবার বাড়ি লাখাই উপজেলার গুণিপুর গ্রামে।

ফাইমার বড় ভাই আজিজুর রহমান জানান, দুই বছর আগে শামীম মিয়ার কাছে ফাইমাকে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময় শামীম তার স্ত্রীকে চাপ প্রয়োগ করত। একাধিকবার তারা টাকাও দিয়েছে। যখন দিতে পারেনি তখন শামীম ফাইমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করত। এসব বিষয় নিয়ে সামাজিকভাবে একাধিকবার বৈঠকও হয়েছে।

সম্প্রতি ঘরে রক্ষিত সোনা বিক্রি করে টাকার জন্য চাপ দেয় শামীম। কিন্তু ফাইমা টাকা না দেয়ায় শামীম তাকে মারপিট করে। এক পর্যায়ে শামীম ঘরে থাকা দা দিয়ে ফাইমার হাতে কোপ দিয়ে কবজি কেটে দেয়।

এ ব্যাপারে মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল রাজ্জাক বলেন, এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের চিকিৎসক শর্মিষ্ঠা মিম বলেন, ওই নারীর হাতের কবজির আঘাতের ক্ষত খুব গুরুতর ছিল। যে কারণে সেলাই দেয়া সম্ভব হয়নি। তবে বিশেষ পদ্ধতিতে ব্যান্ডেজ করে দেয়া হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে ঠিক হয়ে যাবে। তবে একটু সময় লাগবে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply