মিয়ানমারে স্বাভাবিক জীবন ফেরাতে নিন্দা প্রস্তাব পাস, সব বন্দিদের মুক্তির দাবি

|

সেনা অভ্যুত্থান ঘটা মিয়ানমারকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতে সর্বসম্মতিক্রমে নিন্দা প্রস্তাব পাস করলো জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

বুধবার ভার্চুয়াল বৈঠকে মিলিত হন পরিষদের ১৫ স্থায়ী সদস্য। মিয়ানমারের মিত্র এবং প্রতিবেশী চীনও এবার ভেটো দেয়নি। বরং মিয়ানমারে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে নিরস্ত্র আন্দোলনকারীদের ওপর সেনা আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা জানায় দেশগুলো। অবিলম্বে সাবেক রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি এবং প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ত’সহ সব বন্দিদের মুক্তির দাবি জানানো হয়। দেশটিতে গণতান্ত্রিক কাঠামো ফিরিয়ে আনাসহ মানবাধিকার এবং মৌলিক অধিকার সমুন্নত রাখার তাগিদ দেয় নিরাপত্তা পরিষদ।

ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের নিয়ন্ত্রণ নেয় সেনাবাহিনী। যার বিরোধীতায় হওয়া সহিংসতায় প্রাণ হারিয়েছেন ৬০ জনের বেশি; বন্দি ১৮শ’র কাছাকাছি।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, জাতিসংঘের নিন্দা প্রস্তাবে মিয়ানমার জান্তার মধ্যে টনক নড়া উচিৎ। অবিলম্বে সব বন্দিদের মুক্তি, নির্বাচনের ফল মেনে গণতান্ত্রিক ক্ষমতা হস্তান্তর করুন। মুখে বললেও, মিয়ানমারে কখনোই পূর্ণাঙ্গ গণতন্ত্র ছিলো না। বরাবরই সরকার নিয়ন্ত্রণ করতো সেনাবাহিনী। যার বড় প্রমাণ- সাম্প্রতিক অভ্যুত্থান। জান্তা প্রধানের প্রতি আহ্বান পরিস্থিতি স্বাভাবিকে নিন উপযুক্ত পদক্ষেপ।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply