নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পূর্বের ব্যর্থতা ভুলে নতুন করে ভাবতে চান মিথুন

|

কিউইদের বিপক্ষে তাদের ঘরের মাঠে আগে কী হয়েছে সেটা নিয়ে ভাবছি না, এখন কী করবো সেটাই আমাদের মুল ভাবনা। নিউজিল্যান্ড থেকে এক ভিডিও বার্তায় এমন কথাই বলেছেন টাইগারদের ব্যাটসম্যান মিথুন। মিথুনের এই কথা ধরেই একটু অতীত পরিসংখ্যান দেখে আসতে চাই।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াটওয়াশ হয়েছিলো টাইগাররা। প্রথম দুই ম্যাচে হেরেছিলো ৮ উইকেটে। তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডেতে টাইগাররা হার মেনেছিলো ৮৮ রানে। ২০১৭ সালেও একই অবস্থা ছিলো টাইগারদের। প্রথম ম্যাচে চার উইকেটে হেরেছিলো বাংলাদেশ। আর শেষ দু্ই ম্যাচে টাইগারদের হার ৫ উইকেটে। ২০১৬ সালের হিসেবটাও এমনই। তবে, সেইসব খারাপ সময় পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে চায় মিথুন, তামিমরা।

নিউজিল্যান্ডের সবকিছুই টাইগারদের জন্য নতুন, তারপরও আশায় বুক বাঁধছেন ক্রিকেটাররা। তামিম ও মিরাজের পর,মিথুনও অবরিলায় বলে দিলেন অতীতকে বাদ দিয়ে বর্তমান নিয়ে ভাবতে চান তারা। বাংলাদেশ দল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভালো করার যথেষ্ট সামর্থ্য রাখে বলে মনে করেন এই ব্যাটসম্যান।

তিনি বলেন, এই সিরিজে ভালো করতে হলে অবশ্যই আমাদের দল হিসেবে খেলতে হবে। যদি দলীয় ভাবে আমরা পারফর্মেন্স করতে পারি তাহলে অবশ্যই ভালো করবো।
যদিও নিউজিল্যান্ডের আবহাওয়ার সাথে নিজেদের মানিয়ে নেওয়া একটু কষ্টের কাজ তবে, এবার নাকি তেমন কোন অসুবিধাই হবে না মিথুনদের।

নিউজিল্যান্ডের এমন ওয়েদারে নতুন বলে কিউই বোলারদের ঠিক ঠাক সামলাতে পারলেও ভালো করা খুব বেশি কঠিন হবে না বলে মনে করেন এই ব্যাটার। তিনি বলছেন, এবার অনেকদিন সময় পাবো অনুশীলন করার তাই কন্ডিশন নিয়ে কোন চিন্তা নেই আমাদের।

সবকিছু ঠিক থাকলে আজ থেকেই ছোট ছোট গ্রুপে অনুশীলন করার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা। তবে ১৪ দিন পরে খুব স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবে বাংলাদেশ দলের সব সদস্য।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply