তারেক রহমানের নির্দেশ এলে সংসদ বর্জন করবে বিএনপি: রাজশাহীর সমাবেশে বক্তারা

|

এই সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়, বরং কঠোর আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতি নিতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।

মঙ্গলবার রাজশাহীতে দলটির বিভাগীয় জনসভায় নেতারা বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি লুটপাট অর্থপাচার আর নির্যাতনের অভিযোগ এনে বলেন, এ বছরই এই সরকারের শেষ বছর। তারেক রহমানের নির্দেশ এলেই বিএনপি সংসদ বর্জন করবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানিয়ে কর্মীদের উদ্দেশে বিএনপি নেতারা বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুললেই শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে আন্দোলন জোরদার করা হবে।

বিএনপির পূর্বনির্ধারিত বিভাগীয় জনসভার একদিন আগে থেকেই রাজশাহীর সঙ্গে বিভিন্ন জেলার পরিবহন বন্ধ করেন মালিক-শ্রমিকরা। তার ওপর অনুমতি দেয়ার সময় পুলিশ শর্ত বেঁধে দেয়, খোলা মাঠে নয়, আবদ্ধ স্থানে করতে হবে জনসভা। এজন্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পাশাপাশি নগরীর এক কনভেনশন সেন্টারের ভেতরে নেতাকর্মীদের সমাগম নিয়ে সন্তুষ্ট নেতারা।

জনসভায় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, শেখ হাসিনার অধীনে কোনো ভোট বাংলাদেশে হবে না। তার অধীনে কোন ভোট চাই না। সমস্ত বাস বন্ধ করে দিয়েছে। তারপরেও মানুষ সমাবেশে উপস্থিত হয়েছে। ২১ সাল শেখ হাসিনার শেষ সাল। আমরা শেখ হাসিনাকে দেখতে চাই না।

বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, লুটপাট আর টাকা পাচারের অভিযোগ তুলে ধরেন বিএনপি নেতারা। বলেন, এ সবকিছুর জবাব দেয়া হবে আন্দোলনে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সারওয়ার বলেন, গণতন্ত্রহীন সরকার জিয়াউর রহমানের খেতাব নিয়ে নিলেও মানুষের মন থেকে মুছে দিতে পারবে না। ভোট কারচুপির যে ইতিহাস তৈরি করছে তা প্রতিহত করতে হবে, আরেকবার জেগে উঠতে হবে। জনতাকে অবজ্ঞা করে প্রশাসনিক গণতন্ত্র চালাচ্ছে। এটি আমরা চাই না। আমরা গণতান্ত্রিক উন্নয়ন চাই। টাকা পাচারের সব জায়গায় আওয়ামী লীগ রয়েছে। আন্দোলন সংগ্রাম করে পাচার বন্ধ করতে হবে।

চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদত হোসেন বলেন, দুর্নীতির টাকা পাঠানো হয় কানাডার বেগম পাড়ায়। আজ রাজশাহীর হোটেল বন্ধ করে প্রমাণ করেছে তারা ভাতে মারতে পারদর্শী। ভোটের আগে গায়েবী মামলায় এজেন্টদের গ্রেফতার করা হয়। আর যারা করেন তারা বলেন এটা উপরের চাপে করা হয়। যখন নিম্নচাপ শুরু হবে তখন বুঝবেন কী অবস্থা।

সমাবেশে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, কালো আইনে সাংবাদিক মুশতাককে হত্যা করা হয়েছে। জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিল নির্লজ্জ তামাশা। পুলিশ একটি দলীয় সরকারের পেটোয়া বাহিনীতে পরিণত হয়েছে। দালাল সরকার ভারতের সহযোগিতায় ও পেটোয়া বাহিনীর সহযোগিতায় ক্ষমতায় বসে আছে। এটি স্বাধীনতার ৫০ বছরে কাম্য না। আমরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করবো প্রয়োজনে পাল্টা আঘাত করবো। এই আন্দোলন সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে হবে। আমরা পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল চাই।

সরকারের বিরুদ্ধে ভোট চুরির অভিযোগ এনে বক্তারা বলেন, এই সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচনে বিএনপি যাবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, নির্বাচন কমিশনের মানুষের অধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলার প্রতিবাদে এই সভা। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর পুলিশ বাহিনীর যে চেহারা দেখছি, তার সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া পুলিশের কোন মিল নেই। প্রধানমন্ত্রী বলতে চাই আপনি যদি গণতন্ত্র দিয়ে থাকেন তাহলে কেন পুলিশের উপর নির্ভর করতে হয়। আমাদের চাওয়া অনুসারে মিটিং এর জায়গা দেয়া হয়নি, বাধা দেয়া হয়েছে তারপরও আমরা সফল। বাধা দেয়াটা কোন গণতন্ত্র?

উল্লেখ্য ২০১৯ সালের অক্টোবরে রাজশাহীতে বিএনপির সবশেষ বিভাগীয় মহা সমাবেশ হয়েছিল। এর প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় পর অনুষ্ঠিত বিভাগীয় জনসভায় আগের মতোই তীব্র আন্দোলনের বার্তা দিলেন দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply