বাইরে বের হওয়ার পর মাথা ঘুরছিলো: মিরাজ

|

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নিউজল্যান্ডে কঠোর করোনাবিধি মেনে চলছে টাইগাররা। সেখানে পৌঁছে টানা তিনদিন রুমে বন্দি থাকলেও চতুর্থ দিন থেকে বাইরে গিয়ে ৩০ মিনিট করে হাঁটাচলার অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশ দল।

করোনাকালে প্রথম বিদেশ সফরের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে মিরাজ বলেন, বুঝতেই পারছেন কেমন লাগছে। এই প্রথম এরকম হোটেলের ভেতর পাঁচ দিন কাটিয়েছি। প্রথম দিকে সময় কাটছিল না, বিরক্ত লাগছিল। প্রথম তিন দিন তো কারও সাথে দেখাসাক্ষাতই হয়নি। ফোনে ফোনে, ভিডিও কলে কথা হয়েছে,রুম টু রুম। যেহেতু পাঁচ দিন কেটে গেছে, সামনের তিন দিনও আশা করি এভাবেই কেটে যাবে।

নিউজিল্যান্ড পৌছেই টানা ৭২ ঘন্টা ঘরে বন্দি ছিলো মিরাজরা। মিরাজের ভাষায়, তিন দিন পর আধাঘণ্টা করে বের হওয়ার সুযোগ পেয়েছি। প্রথম দিন বের হয়ে মাথা একটু ঘুরছিল। ১০-১৫ মিনিট পর ঠিক হয়ে গেছে। তিন দিন বন্দী ছিলাম, মনে হচ্ছিল জেলখানায় আছি। সারাদিন রুমে থাকতে তো ভালো লাগে না। তিনটা দিন একই রুমে কাটানো এটা আমাদের জন্য অস্বস্তিকর। বাইরের আবহাওয়া মানিয়ে নেওয়ার পর ভালো লেগেছে। রুমে গিয়ে ফ্রেশ মনে হয়েছে।

আর তিনদিন পরেই বাংলাদেশ দল অনুশীলন করার সুযোগ পাবে তবে সবাই একসাথে অনুশীলন করতে পারবে না। ছোট ছোট গ্রুপ করে তাদের অনুশীলন করতে পারবে বাংলাদেশ দল।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply