আয়ার গাফিলতিতে মা ডাক শোনা হলো না আন্নার

|

যশোর জেনারেল হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডের আয়ার কারণে মা ডাক শোনা হলো না গৃহবধূ আন্নার (২৫)। তিনি বেনাপোলের গাজীপুরের ইয়াকুবের স্ত্রী।

শুক্রবার রাত আড়াইটায় প্রসব ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন আন্না। শনিবার সকালে ওয়ার্ড ডাক্তার তানজিলা আখতার একবার দেখে যান। ওয়ার্ড নার্সদের ডাক্তার বলে জরায়ুর মুখ খোলার ওষুধ দিতে।

ডাক্তারের কথা মত আন্নাকে ওষুধ দেয়া হয়। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আন্নার গর্ভে থাকা ছেলের দু’পা বেরিয়ে আসলে ওই ওয়ার্ডের আয়া মোমেনা আন্নাকে ওটিতে নিয়ে বেরিয়ে পড়া পা ধরে টানাটানি করার এক পর্যায়ে বাচ্চাটির মাথা পেটের মধ্যে থেকে যায়।

ছিড়ে বেরিয়ে আসে বাচ্চার গলার নিচ থেকে বাকি অংশ। আন্নাকে ওটিতে ফেলেই পালিয়ে যায় আয়া মোমেনা। আয়ার কাণ্ডে বাক শক্তি হারিয়ে ফেলেছেন আন্না ও তার পরিবারের সদস্যরা।

এ বিষয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসক তানজিলা ইয়াসমিন বলেন, আয়াদের ত্রুটি ছিল। তবে বাচ্চাটি আগেই মায়ের গর্ভে মারা যায়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply