৮৪২ বলের টেস্টে ভারতের দাপুটে জয়

|

আক্সার-অশ্বিনের ঘূর্ণিতে আহমেদাবাদ টেস্টেকু পোকাত ইংল্যান্ড। দুই দিন শেষ না হতেই ভারতের জয় ১০ উইকেটে। ১১ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা আক্সার প্যাটেল। অনেক অনেক রেকর্ডের সাক্ষী হয়ে থাকা এই টেস্টের স্থায়ীত্ব ১৪০ দশমিক ২ ওভার, বলের হিসেবে ৮৪২। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দুই দিনে শেষ হওয়া ৮ম টেস্ট টি ছিল আবার বিশ্বের সবচেয়ে ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্ট।

দ্বিতীয় দিনের খেলায় তখনও বাকি ৩০ ওভার। কিন্তু ততক্ষ নে আহমেদাবাদ টেস্টে ১০ উইকেটের বড় জয় নি শ্চিত ভারতের। বিজয়ের বেশে সাজঘ রের পথ ধরেছেন রহিত শর্মা-সুবমান গিল । যদিও এই অবিশ্বাস্য ঘটনার ভিত গড়ে দিয়ে ছিলের দুই স্পিনার আক্সার প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

আহমেদাবাদ টেস্টের ৪ ইনিংসের স্থায়ীত্ব ছিল যথাক্রমে ৪৮ দশমিক ৪, ৫৩ দশ মিক ২, ৩০ দশ মিক আর ৭ দশ মিক ৪ বল। সব মিলিয়ে টেস্টে বল হয়েছে ১৪০ দশমিক ২ বল। আরও বিস্ময়কর তথয হলো টেস্টে দুই ইনিংনে দুই দল মিলে রান তুলেছে ৩৮৭। যদিও মিমাংসা হয়েছে এমন টেস্টে দুই দল মিলিয়ে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড ২৩৪। এযাত্রায় সেই লজ্জার হাত থেকে বেচে গেছে আহ মেদাবাদ টেস্ট।

দ্বিতীয় দি নের দুই সেশনে ১৭ উইকেট হারিয়েছে দুই দল। আর তা তেই ১৯৩৫ সালের পর সবচেয়ে দ্রুত টেস্ট জয়ের নতুন মাইলফলক ভারতের। আর বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়াম সাক্ষী হ য়ে রইল ক্ষণস্থায়ী এই টেস্টের।

ইং লিশরা প্রথম ইংনিসে ১১২ আর দ্বিতীয় ইনিং সে করে ৮১ রান। এরআ গে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে ২০০ রানের কমে অলআউট হয়েছিল তারা ৭ বার। আর পরিসংখ ্যা নের খাতায় ১৯০৪ সালের পর এ টি তৃতীয়। আর টেস্ট ই তিহা সে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এটি দুই দিনে শেষ হওয়া ৮ম টেস্ট। ই তিহাস আরও আ ছে, ১৯১২ সালে প্রথম দুই দিনে টেস্ট হারের লজ্জাও কিন্তু গে ধে আ ছে ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ডের রেকর্ডবু কে।

প্রথম দিনের ৯৯ রানের সাথে মাত্র ৪৬ রান যোগ করেই ১৪৫ এ থামে ভারত। ৮ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়ে ইতিহাসের সাক্ষি হয়ে প ড়েন জো রুট। টেস্ট ক্রিকে টের ই তিহা সে এরচেয়েও কম রানে ৫ উইকেট পাওয়ার ঘটনা আ ছে মাত্র ৫ টি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply