থানার জানালায় ঝুলছে হ্যান্ডকাপ, র‌্যাবের ধরা গাঁজা ব্যবসায়ীর পলায়ন

|

নিজস্ব প্রতিনিধি:

মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাবের হাতে আটক মাদক ব্যবসায়ী জাকির হোসেনকে (৩২) থানায় জমা দেওয়ার আগে কৌশলে হ্যান্ডকাপ খুলে পালিয়েছে সে। আসামির হাতে থানা হ্যান্ডকাপের বাকি অংশ ঝুলছে থানার জানালায়।

পলাতক আসামি দেবহাটা উপজেলার সেকেন্দ্রা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় পারুলিয়া থেকে তাকে গাঁজাসহ গ্রেফতারের পর বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে র‌্যাব সদস্যরা তাকে সোপর্দের জন্য দেবহাটা থানায় নিয়ে গেলে কৌশলে হ্যান্ডকাপ খুলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় সে। তাকে ধরতে দেবহাটার বিভিন্ন এলাকায় চিরুনি অভিযান চালাচ্ছেন র‌্যাব ও থানা পুলিশের সদস্যরা।

র‌্যাব-৬ এর ওয়ারেন্ট অফিসার মিজানুর রহমান বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় পারুলিয়া থেকে গাঁজাসহ র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল মাদক ব্যবসায়ী জাকিরকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টা ১৫ মিনিটে জাকিরকে হস্তান্তরের জন্য দেবহাটা থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

থানা ভবনের প্রথম দিকে ডিউটি অফিসারের কক্ষের জানালার সাথে জাকিরের হাতে হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে র‌্যাব ও পুলিশের সদস্যরা হস্তান্তর প্রক্রিয়ার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র রেডি করছিল। থানায় নেয়ার ৮ মিনিট পরে ৩টা ২৩ মিনিটে সুযোগ বুঝে কৌশলে হ্যান্ডকাপের হাতের অংশটি খুলে দৌঁড়ে থানা ভবন থেকে রাস্তায় বেরিয়ে পালিয়ে যায় জাকির।
তাৎক্ষণিক দায়িত্বরত র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরাও তার পিছনে ধাওয়া করে। কিন্তু ততক্ষণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের চোখের আড়ালে চলে যায় সে। তিনি আরও বলেন, জানালার সাথে জাকিরের হাতে পরিয়ে রাখা হ্যান্ডকাপটির ত্রুটি ছিল বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, সম্ভবত হ্যান্ডকাপটি ত্রুটি থাকায় থানায় সোপর্দের আগেই জাকির কৌশলে পালাতে সক্ষম হয়েছে। সিসি ক্যামেরার তথ্যানুযায়ী থানায় নিয়ে আসার ৮ মিনিট পরই পালিয়ে যায় জাকির। তবে তাকে পুনরায় গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব ও পুলিশের পক্ষ থেকে চিরুনি অভিযান চলছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী শীঘ্রই জাকিরকে আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হবে বলেও তিনি জানান।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply