আত্মহত্যা করলেন মিউনিক তারকা বুয়াটেংয়ের প্রেমিকা

|

প্রেমের সম্পর্কে সমাপ্তি ঘটার এক সপ্তাহ পরেই পাওয়া গেল বায়ার্ন মিউনিখ তারকা জেরম বুয়াটেংয়ের প্রেমিকার মরদেহ। ইউরোপের জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক মার্ক প্রকাশ করেছে বার্লিনের বাসা থেকে জেরমের সাবেক প্রেমকা লেনার্ডের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে গেল মঙ্গলবার।

বার্লিন পুলিশ এই ঘটনার ব্যাক্সা দিয়ে জানিয়েছেন, বায়ার্ন ডিফেন্ডার জেরম বুয়াটেংয়ের সাবেক প্রেমিকা ছিলেন কাসিয়া লেনার্ড। লেনার্ড ছিলেন একজন প্রখ্যাত পলিশ মডেল। ১৫ মাসের সম্পর্ক ছিল তাদের মধ্যে। কিছুদিন আগে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়েন বুয়াটেং। এরপরই লেনার্ডের সঙ্গে ঝামেলা বাঁধে। এরপর গত সপ্তাহে এক বছরের বেশি সময় ধরে চলা সম্পর্কের ইতি টানেন বুয়াটেং। আর এক সপ্তাহ পরই নিজের ফ্ল্যাটে মরদেহ মিলল লেনার্ডের ।

বার্লিন পুলিশে আরও জানান, ২৫ বছর বয়সী মডেল কাসিয়া লেনার্ড আত্মহত্যা করেছেন। তার মৃত্যুকে হত্যা বিবেচনা করে কোনো তদন্ত করা হচ্ছে না। তবে এ আত্মহত্যার সাথে বুয়াটেংয়ের সম্পর্ক ছেদের কোন যোগসূত্রতা রয়েছে কি না সেটা খতিয়ে দেখবে পুলিশ।

তবে প্কেরেমিকার সাথে সম্পর্ক না রাখার ব্যাপারে বুয়িটেং বলেন, লেনার্ড সবসময় আমাকে ধ্বংস করে দেওয়ার ও আমার খ্যাতি নষ্ট করার হুমকি দিতো। আমার বাচ্চাদের থেকে দূরে সরিয়ে রাখার ও সম্পর্ক শেষ করার চেষ্টা করত। তাতেই আমি মারধর করি এবং বলি অভিযোগ আনার কথা বলত। কারণ সে জানত, আমার সাবেক স্ত্রী আমার বিরুদ্ধে ওই একই অভিযোগ এনেছিলেন।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে দলের সাথে কাতারে অবস্থান করছিলেন বুয়াটেং। সাবেক প্রেমিকার মৃত্যুর খবর শোনার পর পরই কাতার ছেড়ে মিউনিখে ফিরেছেন তিনি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply