আল জাজিরার তথ্যচিত্র সরানোর রিটে ৫ অ্যামিকাস কিউরি নিয়োগ হাইকোর্টের

|

আল জাজিরার প্রতিবেদন সামাজিক মাধ্যম থেকে সরানো সংক্রান্ত রিট শুনানিতে ৫ অ্যামিকাস কাউরির বক্তব্য শুনতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। ১৫ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী শুনানি।

বিচারপতি মো. মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের শুনানি।

বাংলাদেশকে নিয়ে সম্প্রতি টেলিভিশন চ্যানেলটিতে প্রচারিত প্রতিবেদন ইউটিউব, টুইটার, ফেসবুকসহ সব অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে নেয়া জরুরি বলে নির্দেশনা চান রিটকারী। ক্ষোভ প্রকাশ করে জানতে চায় আদালত, কেন সেটা এতোদিনেও করতে পারলো না বিটিআরসি?

এ নিয়ে সংস্থাটির ব্যর্থতা আছে বলে জানায় রাষ্ট্রপক্ষ। আপত্তিকর কিছু সম্প্রচার বন্ধের নির্দিষ্ট আইন থাকা স্বত্ত্বেও কেন আদালতের ঘাড়ে বন্দুক? হাইকোর্টের এমন প্রশ্নে জবাব ছিল না বিটিআরসির পক্ষ থেকে।

সংস্থাটি হাইকোর্টকে জানায়, আন্তর্জাতিক টিভি আল-জাজিরার সম্প্রচার বন্ধের আদেশ দেয়া আইনগতভাবে সম্ভব নয়।

পরে এ বিষয়ে অ্যামিকাস কিউরি হিসেবে সুপ্রিমকোর্টের সিনিয়র আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী, কামালুল আলম, শাহদীন মালিক, ফিদা কামাল, আব্দুল মতিন খসরু ও প্রবীর নিয়োগীর মতামত জানতে চান হাইকোর্ট।

“অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’স মেন’ শিরোনামে গত ১ ফেব্রুয়ারি আল জাজিরায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরই মধ্যে এ প্রতিবেদন ভিত্তিহীন উল্লেখ করে প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র ও তথ্য মন্ত্রণালয় ও আইএসপিআর।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply