আমির খান কি তার সিদ্ধান্তে অটল থাকতে পারবেন?

|

মোবাইল ফোন হলো এই সময়ে যে কারো জন্যই সবচেয়ে প্রয়োজনীয় একটি অনুষঙ্গ। আর এই ফোনই এখন ব্যবহার করছেন না বলিউডের ক্ষমতাধর অভিনেতা আমির খান। বিষয়টি অবাক করার মতো হলেও সত্যি। তার ‘লাল সিং চড্ডা’ ছবির কাজ সম্পূর্ণ না করে মোবাইলে হাতই দেবেন না আমির খান। এমনই ধনুক ভাঙা পণ করেছেন বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট।

শোনা গিয়েছে, সোমবার থেকে নাকি এই নিয়ম অক্ষরে অক্ষরে পালন করছেন তিনি। কিন্তু কেন এই সিদ্ধান্ত আমিরের?

জানা গেছে, আমির মনে করছেন মোবাইল ও সোশ্যাল মিডিয়ায় একটু বেশি আসক্ত হয়ে পড়েছেন তিনি। এর জন্য ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবনে প্রভাব পড়ছে। সেই কারণেই আমির ঠিক করেছেন, ‘লাল সিং চড্ডা’র শুটিং এবং ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আর মোবাইলে হাতই দেবেন না তিনি। সম্পূর্ণ মনযোগ দিয়ে কাজ করবেন। আর বাকি সময়টুকু পরিবারের সঙ্গে কাটাবেন। এবার থেকে আমির সম্পর্কিত কোনও খবর জানতে হলে তার টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। টিমের পক্ষ থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় যাবতীয় পোস্ট করা হবে।

টম হ্যাংকস অভিনীত ক্লাসিক হলিউড ড্রামা ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর অফিশিয়াল রিমেক আমির খান ও কারিনা কাপুর অভিনীত লাল সিং চড্ডা। গত বছরের ডিসেম্বর মাসেই প্রেক্ষাগৃহে ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে শুটিং পিছিয়ে যাওয়ায় মুক্তির তারিখও পিছিয়ে গিয়েছে।

চলতি বছরই ছবিটি মুক্তির পরিকল্পনা রয়েছে পরিচালকের। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেই ছবির শুটিং শেষ করেছিলেন নায়িকা কারিনা কাপুর। ‘লাল সিং চড্ডা’র একটি অ্যাকশন দৃশ্যের শুটিং করতে গিয়ে চোটও পেয়েছিলেন আমির। পাঁজরে চোট লেগেছিল তার। দুর্ঘটনার জেরে কিছুক্ষণ শুটিং বন্ধ রাখা হয়েছিল। তবে মহামারি পরিস্থিতিতে শুটিং বন্ধ রাখতে চাইছিলেন না বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট। তাই ব্যথার ওষুধ খেয়েই ফের শুটিং শুরু করে দেন।

পোস্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply