সু চি’সহ অন্যান্য শীর্ষ রাজনীতিকদের বন্দি অসাংবিধানিক এবং অবৈধ

|

মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা জারির পাশাপাশি অং সান সু চি’সহ অন্যান্য শীর্ষ রাজনীতিকদের বন্দি অসাংবিধানিক এবং অবৈধ। মঙ্গলবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর এ বিবৃতি দেন মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিচ।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি ক্রিস্টিন শ্রেনার বার্গনার। তিনি দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থানের তীব্র নিন্দা জানান। বলেন, গণতন্ত্রের প্রতি সমর্থন জানিয়ে জান্তা সরকারের প্রতি স্পষ্ট ও কঠোর বার্তা পাঠানো দরকার পরিষদের। জরুরি বৈঠকের মূল বক্তব্য- অবিলম্বে মুক্তি দেয়া হোক রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা সু চি, প্রেসিডেন্ট এবং বন্দি এনএলডি’র নেতা-সমর্থকদের।

এদিকে, বন্দি শতাধিক আইনপ্রণেতাকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। সামরিক শাসনের বিরোধিতায় বড় শহরগুলোয় ধর্মঘটে যাচ্ছেন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। সরকারি কর্মকর্তাদের অসহযোগিতা প্রদর্শনের ডাকও দিয়েছেন মানবাধিকারকর্মীরা। মঙ্গলবার রাতে, রাজধানীজুড়ে গাড়ির হর্ন, বারান্দা-জানালা থেকে বিকট শব্দের মাধ্যমে জানানো হয় সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদ।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply