যুক্তরাজ্যে নতুন করোনার ‘আর নাম্বার’ মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে

|

যুক্তরাজ্যে ভিন্ন বৈশিষ্ট্যের করোনাভাইরাসের ‘আর নাম্বার’ বর্তমানে অবস্থান করছে ১ দশমিক ১ থেকে ১ দশমিক ৩-এর মধ্যে।

কোভিড নাইনটিনের তুলনায় যা শূন্য দশমিক ৪ থেকে শূন্য দশমিক ৭ পর্যন্ত বেশি। আর ঠিক এ কারণেই ভাইরাসটি অধিক সংক্রামক। লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের এক গবেষণায় উঠে এসেছে এ তথ্য।

করোনাভাইরাসসহ যেকোনো রোগের সংক্রমণ সক্ষমতা পরিমাপ করা হয় ‘আর নাম্বার’ দিয়ে। এর মাধ্যমে নির্ণয় করা হয়, একজন থেকে ভাইরাসটি কতজনের দেহে ছড়াচ্ছে। বলা হচ্ছে, নতুন ভাইরাস B.1.1.7 আর কোভিড নাইনটিনের মধ্যে যেসব পার্থক্য দেখা যাচ্ছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বিপজ্জনক হলো- ‘আর নাম্বার’ বেড়ে যাওয়া। সংক্রমণের হার কমাতে হলে ১-এর নিচে থাকতে হবে এই ‘আর নাম্বার’।

উল্লেখ্য, নভেম্বরের লকডাউনের সময় ইংল্যান্ডে দৈনিক কোভিড সংক্রমণ কমলেও, নতুন প্রজাতির ভাইরাসটির কারণে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে তিন গুণ। ২০ বছরের কমবয়সীরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছে এতে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply