ইসরায়েলের সমালোচনা করে ভর্ৎসনার শিকার রুশ রাষ্ট্রদূত; পাশে পেলেন দেশকে

|

মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি বিনষ্টের জন্য ইসরায়েলের সমালোচনা করে তীব্র ভর্ৎসনার শিকার হয়েছে রুশ রাষ্ট্রদূত আনাতোলি বিক্তোরভ। তবে তেলআবিবে নিযুক্ত নিজেদের রাষ্ট্রদূতের প্রতি পূর্ণ সমর্থন ঘোষণা করেছে রাশিয়া। ইসরায়েলের সমালোচনা করে দেয়া বক্তব্যের কারণে ওই রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ইহুদিবাদী রাষ্ট্রটি।

রাশিয়া বলেছে, তাদের রাষ্ট্রদূত মস্কোর মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক নীতি অনুসরণ করেই ওই বক্তব্য রেখেছে। খবর তাস নিউজ, জেরুজালেম টাইমস।

গত ৮ ডিসেম্বর তেলআবিবে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আনাতোলি বিক্তোরভ জেরুজালেম পোস্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন– ফিলিস্তিনি ও আরব দেশগুলোর সঙ্গে ইসরায়েলের সাংঘর্ষিক অবস্থান হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতার মূল কারণ। এ অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিতে ইরানের কোনো ভূমিকা নেই।

তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের মূল সমস্যা ইরানের কার্যকলাপ নয়, বরং আরব-ইসরায়েল ও ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘর্ষ নিয়ে জাতিসংঘের প্রস্তাবগুলো উপলব্ধি করতে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর ব্যর্থতার কারণেই মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি হয়েছে।

সিরিয়ায় বিমান হামলা চালিয়ে ইসরায়েল মধ্যপ্রাচ্যে সহিংসতায় উসকানি দিচ্ছে বলেও রুশ রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ইসরায়েল হিজবুল্লাহর ওপর হামলা চালাচ্ছে, হিজবুল্লাহ ইসরায়েলে হামলা চালাচ্ছে না। জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত স্বাধীন দেশগুলোতে হামলা চালানো ইসরায়েলের উচিত নয় বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

ওই সাক্ষাৎকার দেয়ার কারণে ইসরায়েলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিক্তোরভকে তলব করে তাকে ‘তীব্র ভাষায় ভর্ৎসনা’ করে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, তার দেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ইসরায়েল অতিমাত্রায় সংবেদনশীলতা দেখিয়েছে।

তিনি বলেন, রাশিয়া বিশ্বাস করে মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে হলে ফিলিস্তিনি সংকটের সমাধান করতে হবে।









Leave a reply