সৈকতের দাবি ‘গালি দেননি’; আশরাফুল বলছেন ‘জানেন না’

|

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে সবার চোখ যেন আশরাফুলের দিকে। কত রান পেলেন, কীভাবে আউট হলেন, জাতীয় দলে ফেরার মতো পারফরম্যান্স করতে পারবেন তো? কত শত প্রশ্ন মানুষের মনে। বুধবার চট্টগ্রামের বিপক্ষে ম্যাচে মনমতো খেলতে পারেননি অ্যাশ। কিন্তু ম্যাচ শেষে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরেফিরে আশরাফুলই। এবারের ইস্যু- আশরাফুলের সাথে খারাপ ব্যবহার করেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত!

ঘটনাটি ঘটে চট্টগ্রাম-রাজশাহীর শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে। দ্বাদশ ওভারে বল করছিলেন চট্টগ্রামের মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ওভারের দ্বিতীয় বলে সৈকতকে সুইপ করে বাউন্ডারি মারেন মোহাম্মদ আশরাফুল। পরের বলটি আবারও হাকাতে গিয়ে
মিড অফে ক্যাচ তুলে দেন অ্যাশ। কিন্তু সেটি ধরতে ব্যর্থ হন সেখানে থাকা ফিল্ডার। দৌড়ে দুইবার প্রান্ত বদল করেন আশরাফুল। এসময় তাকে রানআউট করতে গিয়ে ওভার থ্রোতে আরও ৪টি অতিরিক্ত রান দেন বোলিং প্রান্তে থাকা সৈকত। যে বলে আউট হয়ে ফিরে যাওয়ার কথা সেই বল থেকেই কিনা উল্টো ৬ রান পেলেন আশরাফুল! স্বভাবতই বোলারের জন্য এটি হতাশার। হতাশ হলেনও সৈকত। সেই ওভারের শেষ বলেই পুল করতে গিয়ে ফাইন লেগে বল তুলে দেন আশরাফুল। এবার আর সহজ ক্যাচটি মিস করেননি সেখানে থাকা মোস্তাফিজ। সাজঘরে ফেরেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের আশা-হতাশার সমার্থক হয়ে ওঠা আশরাফুল। স্বভাবতই সৈকতের উচ্ছ্বাসটা একটু বেশিই ছিল। আর তাতেই ক্ষেপেছেন আশরাফুল ভক্তরা। তাদের দাবি,
সে সময় আশরাফুলকে গালিগালাজ করেছেন সৈকত! তার বিষেদগার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক পোস্টও দেখা গেছে।

আসলেই কী তাই! যমুনা নিউজ কথা বলেছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মোহাম্মদ আশরাফুলের সাথে। কী বলছেন তারা?
সৈকত জানালেন, ওভার থ্রোতে অতিরিক্ত ৪ রান দিয়ে আমি নিজের ওপরই বিরক্ত ছিলাম। সেটিই প্রকাশ পেয়েছিল। আশরাফুল ভাই আমার আনেক সিনিয়র। আমি ওনাকে গালি দিতে যাবো কেনো! ওনাকে আমি অনেক সম্মানের চোখে দেখি। ওনার সাথে আমার কিছু হয়নি।

অন্যদিকে, আশরাফুল জানিয়েছেন, আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি দেখেছি। আসলে মাঠে খেলার সময় অনেক কিছু ঘটতে পারে। কিন্তু তখন তেমন কিছু ঘটেছিল কিনা আমার জানা নেই। আমি নিজের ব্যাটিং নিয়েই ভাবছিলাম। আউট হয়ে যাওয়ায় হতাশ ছিলাম। সৈকত কিছু বলেছে কিনা আমার জানা নেই।

মাঠে আশরাফুলকে দেখে মনে হচ্ছিল আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভুগছেন, একটু বেশিই চাপ নিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু, আশরাফুলের দাবি তিনি নির্ভারই আছেন। দারুণ একটি ইনিংস খেলে তার আত্মবিশ্বাসের প্রমাণ দিতে চান বাংলাদেশ ক্রিকেটের এই- সুপারস্টার। ভক্তরাও নিশ্চয় সেই প্রতীক্ষায়।









Leave a reply