ফেনী কারাফটকে বিয়ে হওয়া আসামির এক বছরের জামিন

|

ফেনী কারাফটকে ধর্ষণ মামলার ভুক্তভোগীর সাথে বিয়ে হওয়া আসামি জিয়াউদ্দিনকে এক বছরের জন্য জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত বলেছেন, এই এক বছরের মধ্যে যদি প্রতারণার কোন প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে সেভাবে পদক্ষেপ নেবে বিচারিক আদালত। আদালত শুনানিতে বলেন, নারীবাদী সংগঠনরা এ বিয়ে নিয়ে যে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন তা অনুচিত। সামাজিক ভারসাম্য রক্ষায় এ ধরণের আদেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১৯ নভেম্বর ফেনীর কারাগারে আসামি জিয়াউদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় ওই নারীর। মামলার আসামি জিয়া উদ্দিনের বাড়ি ফেনীর সোনাগাজীর ৮ নম্বর চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ-পশ্চিম চরদরবেশ গ্রামে।

গত ২৭ মে ভোরে একই ঘরে অবস্থান করা অবস্থায় গ্রামবাসী জিয়া ও অভিযোগকারী মেয়েটিকে আটক করে। স্থানীয়রা দু’জনকে বিয়ে দিতে চাইলে ছেলের বাবা আবু সুফিয়ান মেম্বার রাজি হননি। সেদিন মেয়েটি সোনাগাজী থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।

পুলিশ একইদিন গ্রেফতার করে জিয়াকে। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর বিচারিক আদালতে জামিন চেয়ে ব্যর্থ হয়ে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করে আসামি। গত ১ নভেম্বর হাইকোর্ট ওই মেয়েকে বিয়ে করলে জামিনের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে আদেশ দেন। আদেশের পরই ফেনী জেলা কারাগারে তাদের বিয়ে হয়।









Leave a reply