ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা বিলুপ্তের সুপারিশ; মতবিরোধ আছে ডিনদের মধ্যে

|

আগামী বছর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিলুপ্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। রোববার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির সভায় এ সুপারিশ করা হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য এবং বিভিন্ন অনুষদের ডিনরা উপস্থিত ছিলেন।

তবে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিলুপ্তের বিষয়ে ডিনদের মধ্যে দ্বিমত আছে। বৈঠকে উপাচার্য ‘ঘ’ ও ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বন্ধের প্রস্তাব দিলে এটির পক্ষে-বিপক্ষে ডিনদের মধ্যে আলোচনা হয়। কয়েকজন ডিন সিদ্ধান্তটি চাপিয়ে দিতে চেয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম বলেন, আগামী বছর থেকে ‘ঘ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার বিষয়ে সভায় সুপারিশ করা হয়েছে। এরপর এটি একাডেমিক কাউন্সিলে যাবে। সেখানে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ বিষয়টি এখনও অস্পষ্ট। এতে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। এ নিয়ে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষকরা মাননীয় উপাচার্যের কাছে তাদের মতামত দেবেন।

‘ঘ’ ইউনিটের মাধ্যমে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অন্য বিভাগের বিষয়ে পড়ার সুযোগ পায়। সেটি কীভাবে সম্পন্ন করা হবে এ প্রশ্নের জবাবে ড. সাদেকা হালিম বলেন, যারা এই প্রস্তাবটি উত্থাপন করেছেন ওনারা নিশ্চয় কোনো বিকল্প পদ্ধতির কথা ভেবেছেন। তবে, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের মতো একটা গুরুত্বপূর্ণ অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনগ্রসর সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হবে না।

বৈঠকে সূত্রে জানা গেছে, যেহেতু ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে, তাই ‘খ’ ইউনিটের নাম পরবর্তন করে ‘কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ’ লেখার সুপারিশ প্রদান করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পাঁচটি ইউনিটে ভাগ করে নেওয়া হয়। এগুলো হলো- বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট, কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’, বাণিজ্য অনুষতভুক্ত ‘গ’, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিট এবং চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিট।

এর মধ্যে, ‘ঘ’ ইউনিটের মাধ্যমে গ্রুপ পরিবর্তন করে অন্য গ্রুপের বিষয়গুলোতে ভর্তি হতে পারতেন শিক্ষার্থীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেকজন ডিন জানান, পরীক্ষার সংখ্যা এবং শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি কমানোর জন্যই এ সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন হয়তো এই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট হতে পারেননি। কীভাবে ‘চ’ ইউনিট এবং ‘ঘ’ ইউনিটকে শুধু ক, খ, গ এ তিনটি ইউনিটের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে, সে বিষয়ে পরবর্তীতে বিস্তারিত পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হবে। 

মূলত, উচ্চ মাধ্যমিকের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ক’ ইউনিটে পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি হয়, মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ‘খ’ ইউনিট এবং ব্যবসা শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থীরা ‘গ’ ইউনিটের মাধ্যমে ভর্তি হয়ে আসছে। এ তিন ইউনিটের পরীক্ষার পর অনুষ্ঠিত হয় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা। এ বছরও সেই মোতাবেকই হবে ভর্তি পরীক্ষা।









Leave a reply