বাবার বাড়িতে ঢুকতে না পারা দুই মেয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হাইকোর্টের নির্দেশ

|

গুলশানে বাবার বাড়িতে ঢুকতে না দেয়া দুই মেয়ে মুশফিকা মোস্তফা ও মোবাশ্বরা মোস্তফাকে ২৪ ঘণ্টার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করলে আদালত এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে বাড়ির মালিকানার বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেন আদালত।

আগামী ৯ ডিসেম্বর পরবর্তী আদেশের দিন ধার্য করেন আদালত। বাবা মারা যাওয়ার পর দুই মেয়েকে বাবার বাড়িতে ঢুকতে বাঁধা দেয়া হয়। এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রচার করে যমুনা টেলিভিশন। বিষয়টি নজরে আসে উচ্চ আদালতের। এরপরই তাদের ওই বাড়িতে প্রবেশের ব্যবস্থা করতে আদালত আদেশ জারি করেন।

১৯৮৪ সালে মুশফিকা ও মোবাশ্বেরার মাকে নিয়ে প্রায় ১০ কাঠা জমির ওপর গুলশানের একটি বাড়িতে সংসার শুরু করেছিলেন মোস্তফা জগলুল। তাদের জন্মও বাড়িটিতে। ২০০৫ সালে তাদের মা-বাবার বিচ্ছেদ হয়। পরে আঞ্জু কাপুর নামে এক ভারতীয়কে বিয়ে করেন তাদের বাবা। তিনি একাই এখন এই বাড়ির ভোগদখল করছেন।

উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর মোস্তফা জগলুলের মৃত্যু হয়। মোস্তফা জগলুল ওয়াহিদ পেশায় পাইলট ছিলেন। ভাইবোনদের মধ্যে শুধু সংগীতশিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদ ছাড়া আর কেউ বাংলাদেশে নেই। দুই দিন ধরে বাড়ির সামনে অবস্থান নেন মোস্তফা জগলুল ওয়াহিদের দুই মেয়ে মুশফিকা ও মোবাশ্বেরা। তারা বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply