‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ কঠোরভাবে বাস্তবায়নের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

|

করোনার সেকেন্ড ওয়েভ বিবেচনা করে সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ নীতি কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করার কথা বলেছেন তিনি।

সোমবার দুপুরে, সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক নিয়ে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। তিনি আরও জানান, নতুন করে লকডাউনের চিন্তা করছে না সরকার। উপাসনালয় ও গণপরিবহনে সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে সরকার আরও কঠোর হবে বলেও জানানো হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সতর্ক হওয়ার নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, এখন দেশে করোনারভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বস্তিদায়ক থাকলেও তা নিয়ে সন্তুষ্ট থাকার কারণ নেই। সবাইকেই সতর্ক থাকতে হবে। বিশেষ করে ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ নীতি ব্যাপকভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। কোনোভাবেই কেউ যাতে মাস্ক ছাড়া কোথাও না আসেন।

এ বিষয়ে ইতিমধ্যে মাঠ প্রশাসনকেও বলে দেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

এর আগে, গত ২৫ অক্টোবর মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানিয়েছিলেন, আসন্ন শীত মৌসুমে করোনার সংক্রমণ বাড়তে পারে, এমন আশঙ্কায় ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ নীতি বাস্তবায়ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তখন জানানো হয়েছিল, মাস্ক ছাড়া এলে কাউকে সরকারি ও বেসরকারি অফিসগুলোতে সেবা দেওয়া হবে না।

আজকের বৈঠকে, ২০২১ সালের ছুটির তালিকা অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। আগামী বছর সাধারণ ছুটি ১৪ দিন। এর মধ্যে নির্বাহী আদেশে ছুটি ৮ দিন। আর মুসলিমদের ঐচ্ছিক ছুটি ৫ দিন; সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ৮ দিন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply