মহেশপুরে দেবরদের হাতে ভাবি খুন

|

প্রতীকী ছবি।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার মৃত ভাইয়ের দেনা পরিশোধকে কেন্দ্র করে দেবরদের হাতে ভাবি নাছিমা খাতুন (৫৫) নিহত হয়েছে। সে কমলাপুর গ্রামের আব্দুল লতিফের স্ত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে আটক করেছে।

প্রতিবেশী রকিবুদ্দিন জানান, কমলাপুর গ্রামের মৃত রবিউল হোসেনের ৬ ছেলের মধ্যে আজাদ অবিবাহিত অবস্থায় প্রায় ৮২ লক্ষ টাকা দেনা রেখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। পরে তার অবশিষ্ট ৫ ভাইয়ের মধ্যে ঢাকায় অবস্থানরত জাকারিয়া মৃত ভাইয়ের দেনা পরিশোধ করার জন্য ৫ ভাইকে বলে, এনিয়ে কয়েকবার শালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মৃত আজাদের নামে প্রায় ৪২ লক্ষ টাকার সম্পদ আছে। জাকারিয়া, ভাইদের সাথে কথা বলে জানায়, মৃত আজাদের সম্পদ আমার নামে লিখে দিলে আমি ভাইয়ের সব দেনা পরিশোধ করে দেব। এ নিয়ে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জাকারিয়া ঢাকা থেকে এসে ভাইদের নিয়ে আজ সকালে বাড়িতে একটি শালিশ বৈঠকে বসে।

একপর্যায়ে ভাইয়ে ভাইয়ে সংঘর্ষ বাঁধলে বড় ভাই লতিফের স্ত্রী নাছিমা খাতুনকে (৫৫) ধাক্কা দিলে তিনি দেয়ালের সাথে ধাক্কা খেয়ে মারাত্মক আহত হলে স্থানীয় লোকজন তাকে দ্রুত উদ্ধার করে যশোর চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে মহেশপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পারিবারিক কলহের জেরে সংঘর্ষে ১ জন মহিলার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৩ জনকে আটক করছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মহেশপুর থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।









Leave a reply