স্থায়ীভাবে বাড়ি থেকে চাকরির অনুমতি দিচ্ছে মাইক্রোসফট

|

স্থায়ীভাবে বাড়ি থেকে চাকরির অনুমতি দিচ্ছে মাইক্রোসফট

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আরোপ করা লকডাউনে ঘরে বসেই অফিস করেছে মানুষ। টানা কয়েক মাস ঘরে বসে কাজ করতেই অভ্যস্ত হয়ে পড়েন কর্মীরা। এরমধ্যে লকডাউন উঠে গেলে ফের অফিসগামী হয়েছেন তারা। তবে কোনো কোনো কোম্পানি ঘোষণা দিয়েছে, স্থায়ীভাবে ঘরে বসে চাকরির অনুমতি দিতে যাচ্ছে তারা।

মার্কিন টেক জায়ান্ট ফেসবুক এবং টুইটারকে অনুসরণ করে এবার এমন সিদ্ধান্ত নিলো মাইক্রোসফট।

দ্য ভার্জ এক প্রতিবেদনে জানায়, প্রাণঘাতী করোনা মহামারিতে স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনা করেই কর্মীদের স্থায়ীভাবে বাড়িতে কাজের অনুমতি দিচ্ছে মার্কিন টেক জায়ান্টটি।

স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকায় মাইক্রোসফটের কর্মীরা এখনো বাড়িতে বসেই কাজ করছেন। আগামী জানুয়ারি পর্যন্ত অফিস খুলছে না কোম্পানিটির। ফলে ঘরে বসে কাজ করে এ বছর কাটিয়ে দেবেন মাইক্রোসফট কর্মীরা।

তবে ভবিষ্যতে কর্মীদের কেউ যদি বাড়ি থেকে স্থায়ীভাবে কাজ করতে চান, তাহলে তাকে সে সুযোগ দেবে মাইক্রোসফট। এক্ষেত্রে তাকে ব্যবস্থাপকের অনুমতি নিতে হবে। হোম অফিস করলে কর্মীদের আনুষঙ্গিক কিছু খরচও দেবে মার্কিন কোম্পানিটি।

২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ি থেকেই কাজ করার জন্য কর্মীদের অনুমতি দিয়েছে গুগল। এদিক দিয়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার। কর্মীদের অনির্দিষ্টকালের জন্য বাড়ি থেকে কাজ করার সুবিধা দিয়েছে কোম্পানিটি।

হোম অফিসের অনুমতিসহ কর্মীদের আর্থিক সহায়তাও দিচ্ছে ফেসবুক। এছাড়া ঘরে অফিসের পরিবেশ তৈরির জন্য এক হাজার মার্কিন ডলার পাবেন একজন কর্মী।









Leave a reply