চুয়াডাঙ্গায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আত্মহত্যা

|

চুয়াডাঙ্গায় বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপমানের জ্বালা সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন আক্রান্ত নারী।

বুধবার আলমডাঙ্গার ভোগাইল বাগাদী গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। স্ত্রী-সন্তান রেখে তিন মাস আগে দ্বিতীয় বিয়ে করেন এনামুল। বিষয়টি পরিবার মেনে না নেয়ায় দ্বিতীয় স্ত্রী পলি খাতুন কে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে থাকতো সে। বাড়ির মালিকের দাবি বুধবার রাতে ১০ থেকে ১৫ জনের একটি দল স্ত্রী পলিসহ এনামুলকে তুলে নিয়ে যায়। ভোরে দু’জনকেই বাড়িতে ফেলে রেখে যাওয়া হয়। এসময় অবস্থা গুরুতর ছিল ওই গৃহবধূর। এর কয়েক ঘন্টা পর বিষপানে সে আত্মহত্যা করে।

খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পর থেকেই পলাতক স্বামী। তাকে প্রধান আসামি করে মামলা হয়েছে। সেই সাথে চলছে ঘটনার তদন্ত।

 









Leave a reply