৭ দিনেও চালু হয়নি শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের ফেরি সার্ভিস

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর
৭ দিনেও চালু হয়নি শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের ফেরি সার্ভিস। বিআইডব্লিউটিএ দাবি করেছে মূল চ্যানেলটি চলাচলের উপযোগী করলেও স্রোতে ভেসে আসা ময়লার স্তুপের কারণে পদ্মা সেতুর পিলার এলাকায় ড্রেজিং কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ফলে নাব্যতা না ফিরে আসায় ফেরি সার্ভিস চালু করা যায়নি।

ফেরি চলাচল না করায় ঘাটে আটকে পড়া শত শত ট্রাক শ্রমিক দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। লঞ্চ ও স্পিডবোটে যাত্রী চাপ বেড়েছে। অনেকে ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন।

বিআইডব্লিউটিসি,বিআইডব্লিউটিএসহ একাধিক সূত্রে জানা যায়, শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটে এ মুহুর্তে ১১টি ড্রেজার রয়েছে। এরমধ্যে ৬টি ড্রেজার মূল চ্যানেল লৌহজং টার্নিং চ্যানেলে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ৩টি ড্রেজার পদ্মা সেতুর পিলার এলাকার অধিগ্রহণকৃত জায়গা থেকে কাঠালবাড়ি মুখে কাজ করছে। স্রোতের সাথে প্রচুর পরিমান ভেসে আসা ময়লার স্তুপের কারণে বিকল হয়ে পড়ে ৩টি ড্রেজার। এরমধ্যে একটি ড্রেজার সোমবার মেরামত করে কাজ শুরু করেছে।

গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এই রুটে নাব্য সংকটের কারণে বন্ধ রয়েছে ফেরি চলাচল। ওইদিন পদ্মা সেতুর ২৫ নং পিলারের কাছে ৩টি ফেরি আটকে গেলে ফেরি সার্ভিস বন্ধ হয়ে যায়। এরআগে সকল চ্যানেল বন্ধ হয়ে গেলে পদ্মা সেতুর চায়না চ্যানেল দিয়ে সীমিত আকারে ৫ দিন ফেরি চলে। ৩৩ লাখ ঘনমিটার পলি অপসারণের লক্ষ্য নিয়ে প্রায় ৬ লাখ ২০ হাজার ঘনমিটার পলি অপসারণ সম্পন্ন হয়েছে।









Leave a reply