স্বামীর সহযোগিতায় স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন দেবর!

|

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর:

নাটোরের গুরুদাসপুরে দেবর কর্তৃক ভাবি (২৪) কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় ধর্ষক দেবর আব্দুল বারেক ও স্বামী আব্দুল মালেককে রাতেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে স্বামী মালেক ও দেবর বারেককে অভিযুক্ত করে গুরুদাসপুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। বুধবার গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। অভিযুক্ত ওই দুইজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ অভিযোগ করেন, বেশ কিছুদিন ধরে স্বামীর সহায়তায় দেবর বারেক তাকে কু-প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। কিন্তু দেবরের অনৈতিক প্রস্তাবে তিনি রাজি হননি। সামাজিকতার ভয়ে বিষয়টি তিনি কাউকে জানাননি। সর্বশেষ মঙ্গলবার রাত প্রায় সাড়ে ৯টার দিকে বাড়ির বারান্দায় তিনি মাছ কাটছিলেন।
এ সময় তার স্বামী বাড়িতেই ছিলেন।

তিনি জানান, হঠাৎ দেবর বারেক বারান্দায় আসে। এ সময় স্বামী মালেক বৈদ্যুতিক বাতি নিভিয়ে তাকে শয়ন ঘরে নিয়ে দুই হাত চেপে ধরে তারপর দেবর বারেক তাকে ধর্ষণ করে। তিনি দুজনেরই বিচার দাবি করেছেন।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাহারুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে রাতেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়। বুধবার সকালে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে দুপুরে অভিযুক্তদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ইউএইস/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply