ভারতীয় কর্মকর্তাদের হুমকি: ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে আদালতে পুলিশ

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ফোরলেন প্রকল্পের ভারতীয় কর্মকর্তাদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।

এই ঘটনায় ফোরলেন প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এফকনস ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড এর সিনিয়র ম্যানেজার উনকার নাথ তিয়ারি বাদি হয়ে আশুগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। সাধারণ ডায়েরিটি তদন্ত করে প্রাথমিকভাবে সত্যতা পেয়েছেন আশুগঞ্জ থানা পুলিশ।

জানা যায় ঢাকা-সিলেট মহসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ গোল চত্বর থেকে সরাইল (বিশ্বরোড়) মোড় পর্যন্ত ফোরলেন প্রকল্পের কাজ পান ভারতীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এফকনস ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড।

এফকনস ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড এর ফোরলেন প্রকল্পের সিনিয়র ম্যানেজার উনকার নাথ তিয়ারি লিখিত অভিযোগ পত্রে জানান, ফোরলেন প্রকল্পে কাজ করার জন্য ১২জন ভারতীয় নাগরিক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে হানিফ মিয়ার ভাড়া বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসাবে থাকেন।

গত ২৫ এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে আশুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মিনহাজুর রহমান হৃদয়সহ আরও দুই জন অজ্ঞাত যুবক তাদের ভাড়া বাসার ভিতরে প্রবেশ করে ফারুক কন্ট্রাকটরকে খুজঁতে থাকে। এসময় তারা বলতে থাকে, ফারুক কন্ট্রাকটর যেন আশুগঞ্জে না আসে। ফারুক কন্ট্রাকটর আশুগঞ্জে আসলে তার গলা কেটে ফেলা হবে বলে প্রকাশ্যে হুমকি প্রদান করে।

এই সময় অবস্থানকারী ভারতীয়রা আতঙ্কিত হয়ে যায়। এই ঘটনায় আশুগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে পুলিশ তদন্ত করে ২৮ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে।

এই ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাহমুদ জানান এই ঘটনার সত্যতা পেয়ে আমরা আদালতে প্রতিবেদন পাঠিয়েছি। আসামিদের গ্রেফতার করতে আমরা বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রাখছি।









Leave a reply