১১০ রানে থেমে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

|

দলীয় ১০৭ রানের ৬ উইকেট আর ১১০ রানে অলআউট বাংলাদেশ! অভিষিক্ত আকিলা ধনঞ্জয়ের স্পিন জাদুতে ১১২ রানে পিছিয়ে আছে টাইগাররা।

প্রথম ‍দিন ৫৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিনের প্রথমে আবারও ধাক্কা খেলো লিটনের উইকেটের বিসর্জনের মাধ্যমে। ষষ্ঠ উইকেটে প্রতিরোধ গড়ার জোর চেষ্টা চালান মাহমুদুল্লাহ এবং মিরাজ। তবে দলীয় স্কোর বেশি দূর নিয়ে যেতে পারেননি মাহমুদুল্লাহ। অভিষিক্ত আকিলা দনঞ্জয়ার প্রথম শিকার হলেন তিনি। অফ স্টাম্পের বাইরের স্পিন করে ভেতরে ঢোকা বল পা বাড়িয়ে খেলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। বল ব্যাট-প্যাডের ফাঁক গলে এলোমেলো করে দেয় স্টাম্প। ষষ্ঠ উইকেটে মাহমুদুল্লাহ এবং মিরাজের ৩৪ রানের জুটি প্রথম ইনিংসে সেরা। দলপতি মাহমুদুল্লাহ ব্যক্তিগত ১৭ রানে আউট হয়ে গেলে দলীয় স্কোর কার্ডে ৩ রান যোগ করতে না করতে আকিলা ধনঞ্জয়ার শিকার হন সাজঘরে সাব্বির, রাজ্জক এবং রান আউট হন তাইজুল আর পেরেরার বলে এলবিডাব্লু হন মোস্তাফিজ।

এর আগে অথিতিদের থেকে ১৬৬ রান পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই সাজঘরে ফেরেন লিটন দাস। ২৭তম ওভারের শেষ বলে ইনিংসে নিজের তৃতীয় উইকেট পেলেন সুরঙ্গা লাকমল। ছেড়ে দেওয়ার মতো বল জায়গায় দাঁড়িয়ে খেলতে গিয়ে স্টাম্পে টেনে আনেন লিটন।

৩৫ ওভার শেষে ২৭ রান নিয়ে নবাগত ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহর সাথে ক্রিজে অপরাজিত আছেন মেহেদী মিরাজ।

লঙ্কানদের ২৬৬ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে শুরুতেই সুরঙ্গা লাকমলের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে ফেরেন তামিম ইকবাল। এর পর আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি গত টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরিয়ান মুমিনুল হক। দৃষ্টিকটু ভাবে রানআউট হয়ে ফেরেন তিনি। তামিম ৪ করলেও রানের খাতা খুলতেই পারেননি পয়েট অব ডায়নামো।

পরে রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলার মাশুল দিয়ে লাকমলের বল ছাড়তে গিয়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন মুশফিক। এতে চাপে পড়ে টাইগাররা। সেই চাপের মধ্যে পেরেরার এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েফেরেন ইমরুল কায়েস।

 

 









Leave a reply