‘২০১৯ সালের পরও খেলতে পারবেন মাশরাফি’

|

শুধু ওয়ানডে এবং টি-২০ খেললে মাশরাফির পক্ষে ২০১৯ বিশ্বকাপের পরও ক্রিকেট খেলা সম্ভব। এমনটাই বিশ্বাস করেন তার হাঁটুতে ৭ বার অস্ত্রোপচার করা শল্যবিদ ডেভিড ইয়াং।

তবে অবসরের পর সুস্থ থাকতে ‘নী-ক্যাপে’ অপারেশন করতে হবে মাশরাফিকে। তিন দিন সফর শেষে ফিরে যাওয়ার আগে যমুনা টিভিকে এসব কথা বলেন অস্ট্রেলিয়ান এই সার্জন।

অনেকের মনে সন্দেহ থাকলেও ২০১৯ বিশ্বকাপে মাশরাফি খেলতে চান নিজে। বর্তমানে পুরো ফিট মাশরাফিকে দেখে প্রথমদিন তো টেস্ট খেলার সার্টিফিকেটও দিয়েছিলেন তিনি। তবে ক্যারিয়ার দীর্ঘ করতে সেখানে থেকে ইউটার্ন ডেভিডের।

অস্ট্রেলিয়ান শল্যবিদ বলেন, ‘‘মাশরাফি এখন ভালো অবস্থায় আছে। ও জানে ওকে কি করতে হয়। ২০১৯ বিশ্বকাপের কথা যদি বলেন, আমি বলবো অবশ্যই সম্ভব। তবে তার জন্য শুধু ছোট ফরম্যাটে খেলতে হবে। তাহলে আরো বেশি দিন জাতীয় দলে খেলতে পারবে সে।’’

যে হাটুর সাথে লড়াই করে খেলতে হয় মাশরাফিকে, তার সুস্থতার জন্য বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এতদিন এড়িয়ে চলা আরআইপি নামক বিশেষ ইনজেক দিতে হবে তাকে। তবে অবসরেরর পর আরো একবার যেতে হতে পারে অপারেশন টেবিলে।

ভবিষ্যতেও বাংলাদেশের পাশে থাকতে চান তিনি তবে সেটা চাকরির খাতিরে নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

‘‘বোর্ডের সাথে চাকরি এসব নয়। কেউ ইনজুরিতে পড়লে তার চিকিৎসার প্রয়োজনে যে কোনো সময় আমাকে পাবে বিসিবি। আমরা দরজা বাংলাদেশের জন্য সব সময় খোলা।’’

মাশরাফিকে দেখে অন্যদের শেখার পরামর্শ তার। ইনজুরি থেকে কিভাবে দূরে থাকতে হয় সেই ম্যানেজমেন্টই নাকি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

যমুনা অনলাইন: এএস/









Leave a reply