পরিবেশ অধিদফতরের কর্মকর্তাকে মারধর, সাময়িক বরখাস্ত সেই পুলিশ কর্মকর্তা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি
ফরিদপুরে পরিবেশ অধিদফতরের কার্যালয়ে প্রবেশ করে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারধর এর অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে নৌ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরীকে। এই ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদন করে যমুনা টেলিভিশন।

পরিবেশ অধিদফতরের উপ পরিচালক ড. মো. লুৎফার রহমানের অভিযোগ ও সিসি টিভি ফুটেজ বিশ্লেষণে জানা যায়, গত ৩০ জুন বিকেলে পরিবেশ অধিদফতরের কার্যালয়ে প্রবেশ করে উপ পরিচালকসহ কর্মকর্তা কর্মচারীদের মারধর, গালিগালাজ করেন নৌ পুলিশ ফরিদপুর অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরী।

পরদিন ১ জুলাই রাতেই অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা সুমিত চৌধুরীকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ সদর দফতর।

নৌ-পুলিশ ফরিদপুর অঞ্চলের পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আরেফ জানান, অভিযুক্ত কর্মকর্তা নিয়মিত মাদক সেবন করেন। তিনি প্রায়শ অফিসেও মাতাল হয়ে আসেন এবং অন্যান্য কর্মকর্তা ও ফোর্সদের গালিগালাজ করা সহ মারধর করতে যান। তার ভয়ে আমিও ঠিক মত অফিস করতে পারি নাই। তার এসব কর্মকাণ্ডের জন্য পরিবেশ অধিদফতরের ঘটনার আগেই ২৮ জুন তার বিরুদ্ধে লিখিত ভাবে ডিআইজি অফিস ও হেডকোয়ার্টারে জানিয়েছিলাম। কিন্তু তখন কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এদিকে ১ জুলাই রাতে মহামান্য রাস্ট্রপতির আদেশক্রমে সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন স্বাক্ষরিত স্বরাস্ট্র মন্ত্রণালয়ের শৃঙ্খলা-২ শাখা থেকে জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে দেখা যায় সরকারী কর্মচারী বিধিমালা (শৃঙ্খলা ও আপীল) ২০১৮ এর বিধি ১১(১) অনুযায়ী সুমিত চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, নৌ পুলিশ, ফরিদপুর অঞ্চলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এদিকে জেলা পুলিশের পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামান জানান, এই ঘটনায় পরিবেশ অধিদফতর থেকে লিখিত অভিযোগ থানায় দেয়া হয়েছে। প্রচলিত আইনানুযায়ী সেটির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।









Leave a reply