টিসিবির দোকানে হামলা ও ভাংচুর, ৯ আসামির আত্মসমর্পণ

|

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

টিসিবির দোকান ভাঙচুর, হামলা ও লুটপাটের মামলায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী (৫৫)সহ ৯ আসামি বুধবার সকালে থানায় আত্মসমর্পণ করেছে। পরে আদিতমারী থানা পুলিশ আসামিদের আদালতে প্রেরণ করে।

তবে আসামিদের জামিন আবেদন যথাসময়ে আদালতে জমা না হওয়ায় শুনানি হয়নি। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জামিন শুনানি হতে পারে বলে আদালতের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু মুসা জানান।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, ঢাকার এক এজেন্সির মাধ্যমে সৌদিতে কাজে যান পলাশী ইউনিয়নের নামুড়ি বাজারের টিসিবি ডিলার নুর বক্তের ভাই নুরে আলম। পরবর্তীতে একই এজেন্সির মাধ্যমে উপজেলার পলাশী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শওকত আলীর নাতি রবিউল ইসলাম সৌদিতে যান। নুর বক্তের ভাইয়ের কাগজ সঠিক থাকলেও চেয়ারম্যানের নাতির (রবিউল) বৈধতা না থাকায় সেখানে (সৌদি) অবরুদ্ধ রয়েছেন।

তার নাতিকে সৌদিতে বিক্রি করেছে মর্মে অভিযোগ তুলে গতমাসের ৮ জুন সন্ধ্যায় ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী দলবল নিয়ে নুরবক্তের টিসিবির দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এতে বাঁধা দিলে ডিলার নুরবক্তকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে তারা।

তাকে বাঁচাতে এসে তার ভাই নুর হোসেন ও প্রতিবেশী আনারুল গুরুতর আহত হন। এ সময় দোকানে থাকা টিসিবির পণ্য বিক্রির ২ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয় হামলাকারীরা। এ ঘটনায় টিসিবি ডিলার নুরবক্ত বাদি হয়ে পরদিন ৯ জুন ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলীকে প্রধান করে ১০ জনের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, দোকান ভাংচুর ও লুটপাটের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলীসহ ৯ আসামি থানায় আত্মসমর্পন করলে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।









Leave a reply