বারহাট্টায় সেতুর অভাবে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন লক্ষাধিক মানুষ

|

বাঁশের সাঁকোতে সময়ে অসময়েই ঘটছে দূর্ঘটনা

নেত্রকোণার বারহাট্টায় একটি সেতু না থাকায় ত্রিশটি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ সেই স্বাধীনতার পর থেকেই দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। দীর্ঘ এই সময়ে জনপ্রতিনিধিরা আসছেন গেছেন। ভোটের সময় সেতু করার অঙ্গীকারও করেছেন; কিন্তু কথা রাখেনি কেউ।

বারহাট্টার কাওনাই নদীতে সেতু না থাকায় কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না স্থানীয় চাষিরা। সেতু না থাকায় যুগের পর যুগ ধরে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী।

বারহাট্টার আসমা থেকে মনাশ বাজার সড়কের গোড়ল গ্রামে কাওনাই নদীর ওপর সেতু না থাকায় ত্রিশটি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা একটি বাঁশের সাঁকো। কিন্তু সেটাও ক’দিন পরপর ভেঙ্গে যায়। স্বাধীনতার পর থেকে কাওনাই নদীতে একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসলেও কিছুতেই কাজ হয়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

মনাশ বাজার, কলমাকান্দার দশধার ও আমবাড়ি, গাবারকান্দা, দেওপুর, বাউসী, হাজিগঞ্জ, শেখেরপাড়া, ছয়গাওসহ অন্তত ৩০টি গ্রামের মানুষ চলাচলের সড়ক এটি। রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও। নড়বড়ে বাঁশের সাঁকোতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন পারাপার হয় কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। সেতু নির্মাণের দাবীতে হয়েছে মানববন্ধনও।

তবে নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক মঈনুল ইসলাম জানান, কাওনাই নদীর উপর একটি সেতু নিমার্ণে নেয়া হচ্ছে ব্যবস্থা। সেতু নির্মাণে সাম্ভাব্যতা যাচাই করে দ্রুত প্রস্তাব পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply