কৈশোরকাল এখন ২৪ বছর বয়স অবধি

|

বয়ঃসন্ধিকাল বা কৈশোর আগের তুলনায় দেরিতে শেষ হচ্ছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন একদল গবেষক। সাধারণত ১০ থেকে ১৯ বছর পর্যন্ত বয়সটাকে বয়ঃসন্ধিকাল হিসেবে গণ্য হয়ে আসছে।

বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞান সাময়িকী ‘ল্যানসেট চাইল্ড অ্যান্ড অ্যাডোলেসেন্ট হেলথ’-এ প্রকাশিত ‘দ্য এইজ অব অ্যাডোলেসেন্ট’ শীর্ষক এক প্রবন্ধে গবেষকরা বলছেন, বর্তমানে বয়ঃসন্ধিকাল ১০ থেকে ২৪ বছর বয়স অবধি।

কেন এ সময়টা বেড়েছে, সে বিষয়ে বিভিন্ন কারণ দেখানো হয়েছে প্রবন্ধটিতে। এতে বলা হয়েছে, ছেলে-মেয়েরা এখন দীর্ঘ সময় ধরে লেখাপড়া করে, এবং দেরিতে বিয়ে ও সন্তান নিচ্ছে। ফলে ‘প্রাপ্ত বয়স্ক’ হওয়ার বিষয়ে প্রচলিত ধারণাটা বদলাচ্ছে।

গবেষকরা বিষয়টির সঙ্গে সঙ্গতি বজায় রেখে এ নিয়ে বিদ্যমান আইনও সংশোধন করার পক্ষে মত দিয়েছেন। কিন্তু অন্যান্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এতে তরুণদের অপরিপক্ক হিসেবে গণ্য করার ঝুঁকি বাড়তে পারে।

মস্তিস্কের হাইপোথ্যালাম অংশ থেকে হরমোন নিঃসরণ হওয়া শুরু করলে বয়ঃসন্ধিকাল আরম্ভ হয়। এ হরমোনের প্রভাবে ছেলে-মেয়ে উভয়েরই নানা রকম শারীরিক, এবং মানসিক পরিবর্তন দেখা দেয়।

স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীদের মতে, বয়ঃসন্ধি বা কৈশোর শুরু হয় কম-বেশি ১৪ বছর বয়সের দিকে। তবে, উন্নত স্বাস্থ্য সেবা ও প্রতিদিনের খাবারে পর্যাপ্ত পুষ্টির যোগান থাকা উন্নত দেশগুলোতে এ সময়টা ১০ বছর বয়সেই শুরু হতে পারে।

যুক্তরাজ্যের মতো শিল্পোন্নত দেশে গত দেড় শ বছরে মেয়েদের ঋতুস্রাব শুরুর বয়স গড়ে ৪ বছর কমেছে। দেশটির অর্ধেকের বেশি মেয়ের ১২ থেকে ১৩ বছর বয়সে প্রথম ঋতুস্রাব শুরু হয়।

বয়ঃসন্ধিকালের বয়স সীমার আরও বাড়ানোর পক্ষে বিজ্ঞানীরা নানা যুক্তি দিচ্ছেন। তাদের মতে, এখন মানুষের শরীর আগের চেয়েও বেশি সময় ধরে বাড়ে। পাশাপাশি বিশ বছর বয়সের পরও মস্তিস্কের বিকাশ ঘটে, এবং তা আগের তুলনায় বেশি দক্ষ, এবং দ্রুত কাজ করতে পারে। এমনকি বহু মানুষের আক্কেল দাঁত এখন ২৫ বছর বয়সের আগে গজায় না।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় পরিসংখ্যান অফিসের তথ্য অনুসারে, ২০১৩ সালে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে পুরুষদের প্রথম বিয়ের গড় বয়স ছিল ৩২ দশমিক ৫ বছর। আর নারীদের ক্ষেত্রে এটি ৩০ দশমিক ৬ বছর।

পরিসংখ্যান হতে আরও দেখা যায়, ১৯৭৩ সাল থেকে ২০১৩ অবধি অর্থাৎ ৪০ বছরের ব্যবধানে প্রথম বিয়ের গড় বয়স বেড়েছে প্রায় ৮ বছর।

ল্যানসেটে প্রকাশিত ওই নিবন্ধের গবেষক ও মেলবোর্নের রয়েল চিলড্রেন্স হাসপাতালের বয়ঃসন্ধি বিষয়ক অধ্যাপক সুজান সয়্যার-এর মতে, আইনত ১৮ বছর বয়স হলেই যুক্তরাজ্যে কোনো ব্যক্তি প্রাপ্তবয়স্ক হিসেবে গণ্য করা হয়। আদতে তারা প্রাপ্ত বয়স্ক হিসেবে আরও দেরিতে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনে করে থাকে।

তিনি আরও মনে করেন, অর্থনৈতিকভাবে এখন স্বাবলম্বী হতে আগের চেয়ে বেশি সময় লাগে। এতে তারা দেরিতে সংসার শুরু করে, এবং দেরিতে সন্তানের বাবা-মা হয়। ফলে আগের তুলনায় ‘বয়ঃসন্ধিকালের’ সীমানাটা বেড়েছে।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply