সড়কের গাছ কেটে নেয়ার সময় গাছের চাপায় মুক্তিযোদ্ধা নিহত

|

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার পাপরাইল গ্রামে সড়কের গাছের চাপায় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ কাজীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি ওই পথ দিয়ে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে ওই এলাকার সোহাগ পেদা ও মামুন পেদা অবৈধভাবে সড়কের গাছ কেটে নিচ্ছিলেন। তখন একটি গাছ পথচারী মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ কাজীর শরীরে পরে। তিনি গাছের নিচে চাপা পরে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান।

ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুন মীর বলেন, পাপরাই গ্রামের সড়কের গাছ অবৈধভাবে কেটে নিচ্ছিলেন স্থানীয় সোহাগ পেদা ও মামুন পেদা। মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ কাজী বৃহস্পতিবার দুপুরে তার বাড়ি থেকে স্থানীয় বুড়িরহাট বাজারে যাচ্ছিলেন। পাপরাইল গ্রামের শেষ প্রান্তে পৌঁছালে একটি গাছ তার শরীরে পরে যায়। চাপা পরে ঘটনাস্থলেই তিনি প্রাণ হারান। খবর পেয়ে এলাকার মানুষ নিয়ে তাকে উদ্ধার করতে আসি। কয়েকজন শ্রমিকের অসতর্কতায় একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে প্রাণ দিতে হলো। এর চেয়ে দুঃখজনক ঘটনা কী হতে পারে।

লতিফ কাজীর মেয়ে আরজু মনি বলেন, করোনার কারণে বাবা বাড়ি থেকে বের হতেন না। ঘরের কিছু সদাই ও নগদ টাকা আনার জন্য স্থানীয় বুড়িরহাট বাজারে যাচ্ছিলেন। যাদের অবহেলায় বাবা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের শাস্তি দাবি করছি।

ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, মুক্তিযোদ্ধার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। অবৈধভাবে সড়কের সরকারি গাছ কাটছিলেন একটি চক্র। তাদের অসাবধানতায় ওই গাছের চাপায় মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। অভিযুক্তরা এলাকা থেকে পালিয়েছেন। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।









Leave a reply