আজ থেকে চালু গণপরিবহন, গুণতে হচ্ছে ৬০ শতাংশ অতিরিক্ত ভাড়া

|

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে দুই মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর আজ থেকে যাত্রীবাহী বাস-মিনিবাসসহ গণপরিবহন চালু হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা মেনে সীমিত পরিসরে নির্দিষ্ট সংখ্যক যাত্রী নিয়েই চলাচল করছে এসব যানবাহন। এজন্য শর্তসাপেক্ষে বিদ্যমান ভাড়ার ৬০ শতাংশ অতিরিক্ত গুণতে হচ্ছে যাত্রীদের। তবে ঢাকার বাইরে সচেতনতার বিষয়টি খুব একটা গুরুত্ব পাচ্ছে না। দেখা যাচ্ছে না প্রশাসনের নজরদারি।

সকাল থেকে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি দেখা গেছে। সরকারের নির্দেশনা মেনে পাশাপাশি দুটি আসনের একটি আসন ফাঁকা রেখেই যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে।

পরিবহন কর্মী ও যাত্রী সবাই মাস্ক পরে চলাচলা করছেন। কোনো কোনো বাসচালককে হ্যান্ড গ্লোবস পরে বাস চালাতে দেখা গেছে। অবশ্য মানুষের মাঝে আতঙ্ক থাকায় ও অফিস আদালত পুরোপুরি চালু না হওয়ায় যাত্রী চাপ কম।

এদিকে স্বাস্থ্যবিধি মানা ও ভাড়া যথাযথভাবে আদায় হচ্ছে কি না সেটি তদারকিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে বিআরটিএ। ঢাকার সড়ক কিছুটা গতি পেলেও সিগনাল পয়েন্টের বাইরে তেমন যানজট এখনও চোখে পড়েনি।

এদিকে রাজশাহীতে প্রথম দিনে যাত্রীদের চাপ চোখে পড়ার মতো। কিন্তু শারীরিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপরে উদাসীন বাস কর্তৃপক্ষ ও যাত্রী উভয়েই; নেই প্রশাসনের তৎপরতাও। একই অবস্থা খুলনাতেও। জীবাণুনাশক স্প্রে করার ব্যাপারে রয়েছে গাফিলতি। মানা হচ্ছে না শারীরিক দূরত্ব। এক সিট পরপর বসার নির্দেশনা দেয়া হলেও একই পরিবার হওয়ায় পাশাপাশি বসছেন অনেকেই। প্রশাসনের নজরদারি না থাকায় স্বাস্থ্যবিধি ইস্যুতে রয়েছে অসচেতনতা।









Leave a reply