হাজীদের আর সরকারি ভর্তুকি দেবে না ভারত সরকার

|

হাজীদের দেয়া ভর্তুকি প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে ভারত সরকার। এবছর থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকরের ঘোষণা দেয়া হয়েছে।  দেশটির সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী মুখতার আব্বাস মঙ্গলবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উল্লেখ্য যে, প্রতিবছর হজ যাত্রীদের প্রায় ৭০০ কোটি রুপি ভর্তুকি দেয় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

২০১২ সালের সুপ্রিম কোর্টের এক রায় অনুসারে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে মোদি সরকার । যদিও রায়ে বলা হয়, ২০২২ সালের মধ্যে ধাপে ধাপে ভর্তুকি তুলে দিতে হবে। কিন্তু,  এবছর থেকেই ভর্তুকি পুরোপুরি তুলে নেয় ভারত সরকার। অবশ্য, ভর্তুকির জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ মুসলিম জনগোষ্ঠীর শিক্ষা ও সামাজিক উন্নয়নে ব্যবহার করার কথা জানিয়েছেন সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী।
শুধু তাই নয়, সহজে আকাশ ও জলপথে হজে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দেয়ার পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এই সিদ্ধান্ত মোতাবেক, আগামী পাঁচ বছরের জন্য সরকারিভাবে ৭০ শতাংশ ও বেসরকারিভাবে ৩০ শতাংশ হাজী সৌদি আরবে যাবেন। এরআগে দেশটিতে ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার সুবিধা ছিল না। অবশ্য, বড় অংকের ভর্তুকি থাকায় এ নিয়ে তেমন কোন মাথাব্যাথাও ছিল না হাজীদের।

২০১৮ সালে ভারত থেকে ১ লাখ ৭৫ হাজার হাজী হজব্রত পালন করতে যাওয়ার কথা। যেটি বিগত বছরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি। ভারতীয় হজযাত্রীদের জন্য নিয়মকানুন কিছুটা শিথিলও করেছে সরকার। কমপক্ষে  ৪৫ বছরের নারীদের ৪ জনের একটি দল বিনা মোহরেমে হজ করতে সৌদি আরবে যেতে পারবেন।

টিবিজেড/টিএফ









Leave a reply