ভারতে গণপিটুনিতে নিহত যুবকের লাশ হস্তান্তর করলো বিএসএফ

|

ভারতে গণপিটুনিতে নিহত লোকমান

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:

ভারতে আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে গিয়ে গণপিটুনিতে নিহত হবিগঞ্জের লোকমান হোসেনের লাশ ৫ দিন পর আজ সন্ধ্যায় হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। নিহত লোকমান (৩২) জেলার মাধবপুর উপজেলার মালঞ্চপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিমের ছেলে।

লাশ হস্তান্তরের আগে বিজিবি-বিএসএফ এর মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিজিবি’র পক্ষে ধর্মঘর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন ও বিএসএফ’র পক্ষে ১২০ ব্যাটালিয়ানের মোহনপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার শশিকান্ত নেতৃত্ব দেন। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের মোহনপুর ১৯৯৪/৪ এস পিলারের কাছে লাশ হস্তান্তর করেন বিএসএফ ও পশ্চিম ত্রিপুরা রাজ্যের সিধাই থানার এসিপি কামাল মজুমদার।

এসময় মাধবপুর থানার কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মুর্শেদ আলমসহ ধর্মঘর ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল ইসলাম কামাল, নিহতের বড় ভাই হুমায়ুন মিয়া উপস্থিত ছিলেন। পরে সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে লোকমান হোসেনের লাশ তার ভাই হুমায়ুন মিয়ার কাছে হস্তান্তর করা হয়।

গত ২৪মে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মোহনপুর এলাকায় ফুফুর বাড়ি যাচ্ছিলেন লোকমান হোসেন। ভারতের গোপালনগর এলাকায় পৌঁছাতেই একদল ভারতীয় লোকমান হোসেনকে পথরোধ করে চোর সন্দেহে এলোপাতাড়ি পিটাতে থাকে। এসময় সে বার বার বেড়াতে যাবার কথা বললেও তাদের মন গলেনি। এলোপাপাড়ি পিটুনিতে তার মৃত্যু হয়েছে ভেবে লোকমানকে বাংলাদেশ সীমান্তের অদূরে একটি জঙ্গলে ফেলে দেয় তারা।

খবর পেয়ে পশ্চিম ত্রিপুরা রাজ্যের সিধাই থানা পুলিশ মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে লোকমানের মৃত্যু হয়। ভারতীয় কয়েকটি গণমাধ্যমে গণপিটুনিতে লোকমানের মৃত্যুর খবর প্রচারিত হয়। এরপর কয়েক দফা পতাকা বৈঠকে শেষে আজ সন্ধ্যায় লোকমানের মৃতদেহ হস্তান্তর করে ভারত।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply