ভৈরবে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

|

ব্যবসায়ী জাহাংগীর আলম

ভৈরব প্রতিনিধি:

ভৈরবে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও এক ব্যবসায়ী মারা গেছেন। জাহাংগীর আলম (৭০) নামে ওই ব্যবসায়ীর বাসা পৌর শহরের ভৈরবপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। গত কয়েকদিন যাবত তিনি জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভূগছিলেন বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। খবর শুনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ তার করোনার নমুনা সংগ্রহ করেছেন।

এর আগে গত ১৪মে রাতে শহরের চন্ডিবের এলাকার মাছ ব্যবসায়ী অমিও দাস (৬০) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তারপর গত ১৯মে মঙ্গলবার রাতে জানে আলম (৩৮) নামের এক সবজি ব্যবসায়ী করোনা উপসর্গে মারা যায়। তার মৃত্যুর পর স্বাস্থ্য বিভাগ নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠায়। তিনিও মৃত্যুর আগে জ্বর, সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্টে ভূগছিলেন।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ভৈরবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৭২ জন এবং গতকাল বুধবার পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ৪৬ জন। এছাড়া ভৈরব থেকে নমুনা পাঠানো হয়েছে ৭৩৭ জনের এবং ফলাফল এসেছে ৬৬৫ জনের।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বুলবুল আহমেদ জানান, আজ সকালে জাহাংগীর আলমের মৃত্যুর খবর শুনে আমরা তার নমুনা সংগ্রহ করেছি। জীবিত অবস্থায় তিনি বা তার পরিবার উপসর্গের কথা কখনও বলেননি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি লুবনা ফারজানা জানান, ভৈরবের মানুষগুলি কোন অবস্থাতেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজকর্ম করছে না। তাই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।









Leave a reply