ভারতের সাথে বিতর্কিত ভূখণ্ড নিজেদের মানচিত্রে দেখালো নেপাল, দ্বন্দ্বে দুই দেশ

|

কিছু বিতর্কিত ভূখণ্ড নিয়ে আগে থেকেই দ্বন্দ্ব চলছিল প্রতিবেশী ভারত ও নেপালের মধ্যে। এর মাঝে তা উস্কে দিল ভারতের উত্তরাখণ্ডের পিথাউরাগড়-লিপুলেখের মধ্যে একটি লিংক রোড। খবর আল জাজিরার।

এরপরই গত সোমবার (১৯ মে) মন্ত্রীসভায় বিতর্কিত অংশগুলোকে নিজেদের সীমানা দাবি করে নতুন মানচিত্র প্রকাশের অনুমোদন দেয় নেপালী মন্ত্রীসভা।

বুধবার নেপালের ভূমি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী পদ্মা আরিয়াল তা উন্মুক্ত করেন। এতে ভারতের সাথে বিতর্কিত ভূখণ্ড লিম্পিয়াধুরা, কালাপানি, লিপুলেখও নেপালের ভূখণ্ড হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

গত ৮ই মার্চ পিথাউরাগড়-লিপুলেখ রোডের উদ্বোধন করেছিলেন ভারতের কেন্দ্রী প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। তার পর থেকেই দ্বন্দ্বের শুরু। নেপালের দাবি এই ভূখন্ড তাদের ফলে ভারত সেখানে রাস্তা নির্মাণ করে অবৈধ কাজ করেছে।

এর প্রেক্ষিতে লিংক রোড উদ্বোধনের পরপরই ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিজেদের আপত্তির কথা জানায় নেপাল। অন্যদিকে নেপালেও ভারত বিরোধী রাজনীতি প্রবল হতে থাকে।

নেপালের দাবি, ওই ভূখণ্ড তাঁদের। তবে ভারত নেপালের জবাবে জানায়, ওই ভূখণ্ড সবসময়ই ভারতের ছিল।

উল্লেখ্য, নেপাল ও ভারতের মধ্যে ১৬ হাজার কিলোমিটারের বেশি খোলা সীমান্ত রয়েছে। যার মধ্যে বেশ কয়েকটি জায়গার অধিকার নিয়ে দুই দেশের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। কালাপানি, লিপুলেখ এবং সুস্তা নিয়ে ভারত ও নেপালের দ্বন্দ্ব রয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply