সিলেটে একই বাড়ির ১৩ জন আক্রান্ত

|

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় একই বাড়ির ১৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার (১৬ মে) দিবাগত রাতে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যায় তার মধ্যে এই ১৩ জনসহ গোলাপগঞ্জ উপজেলারই ১৪ জন রয়েছেন। এ নিয়ে গোলাপগঞ্জ উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ জন।

গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওসমানী হাসপাতালে শনাক্ত হওয়া ১৮ জনের মধ্যে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ১৪ জন রয়েছেন।যার মধ্যে ১৩ জনই একই বাড়ির। তাদের বাড়ি গোলাপগঞ্জের টিকরবাড়ি এলাকায়। তারা করোনা আক্রান্ত এক রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন। আর অন্যজন একই উপজেলার সুন্দিশাইল গ্রামের।

জানা যায়, টিকরবাড়ির আক্রান্ত ১৩ জনের মধ্যে ৯ জন মহিলা, ৩ জন পুরুষ ও একজন শিশু (৬) রয়েছে । পৌরসভার সুন্দিশাইলের আক্রান্ত যুবকের বয়স ৩০। টিকরবাড়ির আক্রান্তরা আগে আক্রান্ত এক বৃদ্ধের সংস্পর্শে এসেছিলেন। তবে সুন্দিশাইলের যুবক কার সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হয়েছেন সে ব্যাপারে এখনও কিছু বলতে পারছেন না সংশ্লিষ্টরা।

গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মনিস্বর চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন ‘টিকরবাড়ির আক্রান্তদের বাড়ি আগেই লকডাউন করা হয়েছে। সকালে তাদের বাড়িতে গিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। কেউ বেশি অসুস্থ হয়ে থাকলে তাকে শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে।’ সুন্দিশাইলের যুবকের সঙ্গে এখনও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তাঁর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এর আগে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক হিমাংশু লাল রায় জানান, শনিবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষায় ১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যায়। শনাক্ত হওয়া ১৮ জনের সবাই সিলেট জেলার। এরমধ্যে গোলাপগঞ্জের ১৪ জন, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দুই নার্স এবং শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের একজন ব্রাদার রয়েছেন।









Leave a reply