নতুন করে ঋণ যোগাতে চার প্রতিষ্ঠানকে ২ হাজার কোটি টাকার তহবিল

|

করোনাভাইরাস সঙ্কটে গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও দরিদ্র কৃষক, প্রবাসী শ্রমিক এবং কর্মহীন বেকার যুবকদের ঋণ সহায়তা যোগাতে দুই হাজার কোটি টাকার তহবিল দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক এবং পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনকে ৫০০ কোটি করে মোট দুই হাজার কোটি টাকা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার গণভবনে এক অনুষ্ঠানে নতুন এই ‘প্রণোদনা প্যাকেজের’ ঘোষণা আসে।করোনাভাইরাসের এই সময় এটি হবে সরকারের ঘোষিত ১৮তম প্রেণোদনা প্যাকেজ। আগামী পয়লা জুলাই থেকে এই ঋণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করা হবে।

করোনা প্রদুর্ভাবে প্রবাসে কাজের সুযোগ সীমিত হয়ে আসছে। সেখানে বহু মানুষ এখন কাজ হারিয়ে দেশে ফিরে আসছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, আরও অনেক প্রবাসী চাকুরি হারাতে পারেন। তারা যাতে দেশে ফিরে অর্জিত অভিজ্ঞাতা কাজে লাগিয়ে দেশেই কিছু কাজ করে খেতে পারে, তাদের সেই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাটা সরকার করে দিচ্ছে। সেজন্য প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকে আরও ৫০০ কোটি টাকা দেয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

যুবকদের বেকারত্ব দূর করতে কর্মসংস্থান ব্যাংকে আরো ৫০০ কোটি টাকা বিশেষ আমানত হিসেবে দেওয়ার কথা জানান শেখ হাসিনা। বলেন, কোনো যুবক বা তরুণ বা তরুণী জামানত ছাড়াই এখান থেকে স্বল্প সুদে দুই লক্ষ টাকা ঋণ নিতে পারবে। এই ঋণ নিয়ে তারা নিজেরা ব্যবসা করতে পারবে অথবা যৌথভাবে ব্যবসা করতে পারবে।

এছাড়া, গ্রামীণ এলাকায় বিভিন্ন ক্ষুদ্র ব্যবসা ও অপ্রাতিষ্ঠানিক বিভিন্ন খাতের সাথে যুক্ত মানুষের উৎপাদন ও আয় ব্যাপক হারে কমেছে। যা কর্মসংস্থানের ‍উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। ফলে গ্রামীণ জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রাখতে পল্লী কর্ম সংস্থান ব্যাংকেও একই পরিমাণ প্রণোদনার ঘোষণা অনুষ্ঠানে দেন প্রধানমন্ত্রী।









Leave a reply