শিমুলিয়া ঘাটে থামছে না গার্মেন্টসকর্মীদের উপচেপড়া ভিড়

|

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি:

করোনার প্রাদুর্ভাব উপেক্ষা করে সংসারের অভাব দুর করতে টানা সাত দিন যাবত মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে গার্মেন্টসকর্মীদের উপচে পড়া ঢল যেন থামছেই না।

রোববার সকালেও চাকরিতে যোগ দেবার উদ্দেশ্যে কাঠালবাড়ি ঘাট থেকে গাদাগাদি করে ফেরিতে উঠে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে নেমে তারা ছুটছেন ঢাকার দিকে। সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ফেরি শাহ পরান, ফেরি যমুনা ও ফেরি কাকলীতে চড়ে অন্তত দুই হাজার গার্মেন্টস শ্রমিক পদ্মা পাড়ি দিয়ে শিমুলিয়া ঘাটে এসে পৌঁছান।

জেলার লৌহজংয়ের মাওয়াস্থ শিমুলিয়া ঘাটের ম্যানেজার সাফায়েত আহমেদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মাওয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ সিরাজুল ইসলাম জানান, গণপরিবহন বন্ধ থাকায় শিমুলিয়া ঘাট থেকে ঢাকা বা নারায়ণগঞ্জে যেতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তাদের। শিমুলিয়া ঘাটে কোনো গণপরিবহন না থাকায় বেশী ভাড়ায় গার্মেন্টস শ্রমিকরা মিশুক ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা করে আবার কেউ পায়ে হেঁটেই ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

বিআইডবি­উটিসির শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, রোববার সকাল থেকে শ্রমজীবি মানুষকে ফেরিতে নদী পার হতে দেখেছি। তিনটি ফেরিতেই মানুষের চাপ বেশি ছিল। সব মিলিয়ে আনুমানিক দুই হাজার গার্মেন্টসকর্মীরা নদী পার হয়ে নিজ কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। কাঁঠালবাড়ী ঘাটে সেনাবাহিনী ও পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।









Leave a reply