ঢাকা মেডিকেলে করোনা রোগীর চিকিৎসা শুরু

|

ছবি:সংগৃহীত

ঢামেক (ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে) এর বার্ন ইউনিটে শনিবার (২ মে) শুরু হচ্ছে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা। প্রথম ধাপে তিন শতাধিক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দেয়া শুরু হবে। হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জানান, কোভিড-১৯ এর রোগীদের চিকিৎসা চ্যালেঞ্জ হলেও সর্বোচ্চ সেবা দিতে প্রস্তুত তারা।

দেশের সবচেয়ে বড় সরকারি হাসপাতালে এবার শুরু হচ্ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা। জরুরি বিভাগের ৬ তলা ভবনের বার্ন ইউনিটটিতে স্থাপিত আইসিইউ ও আইসোলেশন ইউনিটে চলবে চিকিৎসা সেবা। প্রস্তুত ডায়ালাইসিস ও অপারেশন ব্যবস্থাও। করা হয়েছে বিশেষজ্ঞ টিম।

ঢাকা মেডিকেলের পরিচালক বলেন, যারা করোনা সাসপেক্ট তাদেরকে রেখে চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে। তারপর যদি পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয় তাকেও আমরা চিকিৎসা দেব।

এছাড়া একসঙ্গে সাড়ে চার হাজার জনের জন্য অক্সিজেন কেন্দ্রীয়ভাবে সাপ্লাইয়ের সক্ষমতা আর প্রয়োজনীয় ভেন্টিলেটর সাপোর্ট থাকার কথা জানান হাসপাতাল পরিচালক। তিনি বলেন, এ হাসপাতালে সব ব্যবস্থা আছে। যতই ঝুঁকি থাকুক না কেন আমরা সেগুলো মাথায় নিয়ে সম্মিলিতভাবে কাজ করে এগিয়ে যাবো।

অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই দ্বিতীয় ধাপে আরও শতাধিক রোগীর চিকিৎসা সেবা দেয়ার প্রস্তুতিও শেষ পর্যায়ে হাসপাতালটির। শিগগিরই হাসপাতালের মেডিসিন ব্লক ভবনে চালু হওয়ার কথা রয়েছে দ্বিতীয় করোনা ইউনিট। এমন উদ্যোগ করোনার বিরুদ্ধে চলমান লড়াইয়ে আশা জাগাবে বলে মত স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টদের।









Leave a reply