চুয়াডাঙ্গায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম

|

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

চুয়াডাঙ্গায় যুবলীগ কর্মী মোনাজাত উদ্দীনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা শহরের পৌর এলাকার তালতলা গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। রাতেই আশঙ্কজনক অবস্থায় তাকে চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকা পঙ্গুতে রেফার্ড করা হয়েছে। আহত মোনাজাত উদ্দীন তালতলা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে।

পুলিশ জানায়, চুয়াডাঙ্গা শহরের তালতলা গ্রামের তেতুলতলা মোড় থেকে মোতাজাত উদ্দীনকে সাত আট জনের সশস্ত্র একটি দল জোরপূর্বক ধরে নিয়ে যায় গ্রামের স্কুলের পিছনে। সেখানে তাকে উপর্যুপরী কুপিয়ে জখম করা হয়।

এসময় মোতাজাতের চিৎকারে স্থানীয়রা বেরিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসী তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডাঃ সাকিল আরসালান জানান, ধারালো অস্ত্র দিয়ে মোনাজাত উদ্দীনের মাথা, বাম হাত ও দুই পা সহ শরীরের অসংখ্য স্থানে আঘাত করা হয়েছে। এতে তার শরীর থেকে অনেক রক্তক্ষরণ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আমরা ঢাকা পঙ্গুতে রেফার্ড করেছি।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফকরুল আলম খাঁন জানান, হামলাকারী ও হামলার শিকার হওয়া উভয়ই একই সংগঠনের নেতা কর্মী। নিজেদের মধ্যে পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ হামলা ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে। হামলাকারীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের দুটি ইউনিট কাজ করছে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply