করোনায় পুরো আফ্রিকায় আক্রান্ত হতে পারে এক কোটি মানুষ: ডব্লিওএইচও

|

আফ্রিকার দেশগুলোতে ছয় মাসের মধ্যে এক কোটি মানুষ আক্রান্ত হতে পারে করোনাভাইরাসে। এমন সতর্ক বার্তা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সাথে চিকিৎসা সরঞ্জামের সংকট আর অব্যবস্থাপনার কারণে করোনা ভয়াবহ রুপ ধারণ করতে পারে মহাদেশটিতে। তবে আফ্রিকানরা বলছেন, তাদের কাছে করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর, ক্ষুধার জ্বালা।

লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের গবেষণার তথ্য বলছে, আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে মারা যেতে পারে ৩ লাখের বেশি মানুষ। এছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, মহাদেশটিতে ৬ মাসের ভেতর কোভিড নাইনটিনে আক্রান্ত হবে ১ কোটি মানুষ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম বলেন, আফ্রিকায় গেলো সপ্তাহের চেয়ে ৫১ শতাংশ বেড়েছে সংক্রমণের সংখ্যা। এছাড়া একই সময়ে ৬০ শতাংশ বেড়েছে মৃত্যু হার। এতে অনুমান করা যায়, কি হারে ছড়িয়ে পড়তে পারে সংক্রমণ। তবে তারা সবচেয়ে বেশি সংকটে পড়বে করোনা পরীক্ষার কিট নিয়ে। >

আফ্রিকা নিয়ে প্রধান শঙ্কার কারণ, অর্থনৈতিক সংকট, চিকিৎসা খাতের বেহাল দশা আর জনগণের সচেতনতার অভাব।

নাইজেরিয়ার স্বেচ্ছাসেবী ফেমি ওদুসানিয়া বলেন, এই সময় সবার ঘরে থাকাটা খুবই জরুরি। কিন্তু দেখেন এখানে কিভাবে বাজার বসছে। মূলত এমন পরস্থিতি নিয়ন্ত্রণের সরকারের পদক্ষেপ জরুরি।>

ক্ষুধার কাছে করোনাকে তুচ্ছ মনে করছেন আফ্রিকানরা। তারা বলছেন, অঞ্চলটিতে করোনা মোকাবেলা করতে হলে সবার আগে খাদ্য নিশ্চিত করতে হবে। যদিও আফ্রিকার জন্য অতিরিক্ত দেড়শ মিলিয়ন ডলার তহবিলের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ইউরোপ-অ্যামেরিকার মতো মহামারি রুপ না নিলেও, এখন পর্যন্ত আফ্রিকার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ মিশরে। আর সবচেয়ে বেশি তিন শতাধিক মৃত্যু দেখেছে আলজেরিয়া।









Leave a reply