নারী নেতৃত্বাধীন দেশগুলো করোনা মোকাবেলায় সফল!

|

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রকোপ দিন দিন বেড়েই চলছে। ক্রমেই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। করোনা মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে উন্নত রাষ্ট্রগুলো। তবে কিছু দেশ করোনা মোকাবেলায় সফল হয়েছে। অবাক করা বিষয়ে সেসব দেশগুলোর অধিকাংশেরই নেতৃত্বে রয়েছে নারীরা। নারীরাই বিশ্বকে দেখিয়ে দিচ্ছেন যে কীভাবে করোনাভাইরাসের মতো জটিল বিষয় সামাল দিতে হয়। ফোবর্স ম্যাগাজিন এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছে।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল। সংকটের শুরুতেই তিনি সোজাসাপ্টাভাবে মানুষকে বলেছেন, এই রোগ অত্যন্ত ভয়াবহ। দেশের ৭০ শতাংশ নাগরিক এতে আক্রান্ত হতে পারে। একে গুরুত্বের সঙ্গে নিন। কোনো রাখঢাক রাখেননি। তিনি নিজে একে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন। নাগরিকরাও তার কথা শুনেছেন। অনেক বড় দেশ হলেও দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম।

চীনের প্রতিবেশী দেশ তাইওয়ান। দেশটির নেত্রী সাই ইং-ওয়েন করোনা বিস্তার প্রতিরোধে ১২৪টি পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। তার মধ্যে লকডাউন অন্তর্ভুক্ত ছিল না। তারপরও এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সফল দেশ হিসেবে তাইওয়ানকে ধরা হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডে জ্যাসিন্ডা আর্ডেনের দ্রুতই লকডাউন ঘোষণা করেন। তিনি এই বিষয়ে স্পষ্ট ছিলেন যে, দেশকে সর্বোচ্চ মাত্রার সতর্কতার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। কেন এই ব্যবস্থা তা-ও স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা করেন তিনি। দেশে যখন মাত্র ৬ জন রোগী ধরা পড়ে, তখনই তিনি নিউজিল্যান্ডে প্রবেশকারী ব্যক্তিদের সেলফ-আইসোলেশন বাধ্যতামূলক করেন। শিগগিরই তিনি দেশে বিদেশীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেন। স্পষ্টতা ও ত্বরিতগতিতে সিদ্ধান্ত নিতে পারায় আজ নিউজিল্যান্ড অনেকটাই সুরক্ষিত। মধ্য এপ্রিল নাগাদ, নিউজিল্যান্ডে মৃতের সংখ্যা মাত্র ৪ জন।

প্রধানমন্ত্রী ক্যাটরিন জ্যাকবসদত্তিরের নেতৃত্বে আইসল্যান্ড দেশের সকল নাগরিকের জন্য বিনামূল্যে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছে। কোভিড-১৯ রোগের বিস্তার নিয়ে দেশটি হয়ে উঠবে এক গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষাস্থল। দক্ষিণ কোরিয়াকে পরীক্ষার দিক দিয়ে অনেকেই অনুকরণীয় ভাবেন। কিন্তু জনসংখ্যার অনুপাতে আইসল্যান্ড দক্ষিণ কোরিয়ার চেয়েও ৫ গুণ বেশি পরীক্ষা করিয়েছে।

একইভাবে ফিনল্যান্ডের সানা ম্যারিন, নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী এরনা সলবার্গও তড়িৎ পদক্ষেপ নিয়ে তাদের দেশকে মহামারির হাত থেকে তুলনামূলকভাবে রক্ষা করতে পেরেছেন।









Leave a reply