করোনায় আরোগ্য লাভের পর ফের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কতটা?

|

বৈশ্বিক করোনা সংকটে সংবাদমাধ্যমের কয়েকটি খবর সত্যি চমকে দেবার মত। আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়ে ফের আইসোলেশনে ভর্তি করোনা রোগী। কারণ চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও সম্প্রতি বাংলাদেশেও কিছু লোক কোভিড-১৯ থেকে নিরাময় পাওয়ার পর করোনা টেস্টে পুনরায় পজিটিভ রেজাল্ট এসেছে। এটা আসলেই উদ্বেগের খবর। প্রশ্ন উঠেছে করোনায় পুনরায় সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কতটা?

টাইমস জানায়, কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাস নামক নতুন ভাইরাসটি কয়েকমাস আগে আবিষ্কৃত হয়েছে বলে বিজ্ঞানীরা এখনো ভাইরাসটি সম্পর্কে অনেক বড় প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করছেন। তেমন একটি প্রশ্ন হচ্ছে, কোভিড-১৯ রোগীদের উপসর্গ সম্পূর্ণ দূর হওয়ার পর তারা কি আবারও ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হতে পারেন?

জানা যায়, রোগীদের শরীরে উৎপন্ন অ্যান্টিবডি নির্দিষ্ট করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে মাসের পর মাস অথবা কয়েক বছর পর্যন্ত ইমিউনিটি দেয়, অর্থাৎ এই সময়ের মধ্যে তারা ভাইরাসটিতে আর সংক্রমিত হন না। তবে গবেষকরা নিশ্চিত নন যে, কোভিড-১৯ সৃষ্টিকারী নতুন করোনাভাইরাসটি কত সময়ের জন্য ইমিউনিটি দেয়।

এ বিষয়ে গবেষকরা প্রশ্নটির সুনির্দিষ্ট উত্তর পেতে গবেষণা অব্যাহত রেখেছেন। কোভিড-১৯ বা নতুন করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধ করতে অথবা কার্যকর টিকা উদ্ভাবনের জন্য এর উত্তর জানা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।

সুস্থ হওয়ার পর আবারও সংক্রমণের সম্ভাবনা নিয়ে গবেষকরা নিশ্চিত তথ্য জানাতে পারেননি। তারা মনে করছেন যে চীন, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ায় পুনরায় সংক্রমণের যে কেসগুলো পাওয়া গেছে তা পুনঃসংক্রমণ নাও হতে পারে। হয়তো তাদের শরীরে নতুন করোনাভাইরাস থেকে গিয়েছিল, কিন্তু টেস্টে অস্তিত্ব ধরা পড়েনি।

হয়তো লুকিয়ে থাকা ভাইরাসগুলো তাদেরকে পরবর্তীতে আবারও উপসর্গে ভুগিয়েছে অথবা টেস্টের রেজাল্টকে পজিটিভ করেছে। তাই এসব কেস পুনঃসংক্রমণ না হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস মেডিক্যাল ব্রাঞ্চের ভাইরোলজিস্ট বিনিত মিনাশেরি বলেন, ‘সাধারণত ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার সাত থেকে ১০ দিনের মধ্যে রোগীর শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়।’

আবার সেরে ওঠার পর শরীরে রয়ে যাওয়া রেসিডুয়াল ভাইরাল আরএনএ’র কারণে টেস্টে পজিটিভ রেজাল্টও আসতে পারে, কিন্তু রোগ সৃষ্টি করার মতো যথেষ্ট পরিমাণে নয়, বলেন ডা. মিনারেশি। তিনি আরো বলেন, ‘প্রকৃত ভাইরাস নিষ্ক্রিয় হওয়ার পরও দীর্ঘসময় ধরে ভাইরাল আরএনএ থেকে যেতে পারে।’









Leave a reply