‘লাশ গোনা ছেড়ে দিয়েছি’; মৃত্যুপুরীর অভিজ্ঞতা জানালেন যুগল

|

জানালা দিয়ে আকাশ দেখার বদলে তারা দেখছেন লাশ আনা-নেয়ার দৃশ্য। ‘মৃত্যুপুরী’তে বাস করার অভিজ্ঞতা কেমন তা তুলে ধরেছেন নিউইয়র্কের এক যুগল।

নিউইয়র্কের ব্রুকলিন অ্যাপার্টমেন্টের বাসিন্দা বছর আটাশের অ্যালিক্স মন্টেলিওন ও তার প্রেমিক মার্ক কজলো। শহরের অবস্থার কথা স্কাইপে আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন তারা। বাইরে বেরোতে পারছেন না তারা। তাই প্রিয় শহরটা এই সময়ে কেমন আছে, তা জানতে জানালা খোলা রেখে দিয়েছেন তারা। তারা জানিয়েছেন, আমরা অ্যাপার্টমেন্ট থেকে বিহঙ্গ দৃষ্টিতে দেখতে পাচ্ছি শহরটাকে।

পাশ্ববর্তী উইকওফ হাইটস মেডিক্যাল সেন্টারে যা ঘটছে তাও দেখতে পাচ্ছেন মন্টেলিওন ও কজলো। তার বর্ণনা দিতে গিয়ে মন্টেলিওন বলেন, আমরা শুনতে পাচ্ছি বাইরে খুব চিৎকার চেঁচামেচি হচ্ছে যা থেকেই ধারণা করতে পারি, ভেতরের পরিস্থিতি কতটা খারাপ। কত লাশ ওখান থেকে বেরিয়ে এল তা গোনা এখন ছেড়ে দিয়েছি। এটা খুবই ভয়াবহ দৃশ্য। কিন্তু এটাই এখন বাস্তবতা।

তারা জানান, প্রতিদিন আমার আত্মীয় ও শহরকর্মীরা আমাদের এই শহর ছাড়তে বলছে। তারা মনে করছেন, এ শহর এখন আমাদের জন্য ঠিক নয়।

নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে লাশের মিছিল বইয়ে দিয়েছে। ইতিমধ্যে এই শহরেই আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছে ৭ হাজারের বেশি মানুষ।









Leave a reply