করোনার মোকাবেলায় ‘পরমাণু বাঙ্কার’ খুলে দিয়েছে ইসরায়েল

|

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ইসরায়েলেও হানা দিয়েছে করোনাভাইরাস। সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ায় পাবর্ত্য এলাকায় নির্মিত একটি ‘পরমাণু বাঙ্কার’ খুলে দিয়েছে দেশটি। করোনা থেকে বাঁচতে সেই বাঙ্কারে আশ্রয় নিচ্ছে ইসরায়েলের নাগরিকরা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, লেবাননের হিজবুল্লাহ ও ফিলিস্তিনের হামাস যোদ্ধাদের হামলা থেকে বাঁচতেই এই বাংকার নির্মাণ করেছিল ইসরাইল। করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে থাকায় এই বাঙ্কার খুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

পরমাণু অস্ত্রের হামলা থেকে বাঁচতে এক দশকেরও বেশি সময় আগে জেরুজালেমের পাবর্ত্য এলাকায় এ বাংকার নির্মিত হয়েছিল। ন্যাশনাল ম্যানেজমেন্ট সেন্টার নামের এই বাঙ্কারটিতে বসবাসের সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। করোনা মহামারির চরম ঝুঁকির মুখে চলতি সপ্তাহে বাঙ্কারটি খুলে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসারায়েলি কর্তৃপক্ষ। এখান থেকে জেরুজালেমের সরকারি দফতর ও রাজধানী তেলআবিবের সঙ্গে সহজেই যোগাযোগ করা যায়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণ ও পরিস্থিতির ওপর নজর রাখার ক্ষেত্রে এই বাঙ্কার বিশেষ সুবিধা দেবে। দীর্ঘ সময় ধরে আমাদের এই পরিস্থিতির সঙ্গে লড়তে হবে।

তবে করোনার ভয়ে বাঙ্কারে থাকার এমন সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভার বেশ কয়েকজন সদস্য।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী নাফতালি বেনেট বলেছেন, ‘আমাদের ওপর কোনো মিসাইল হামলা হচ্ছে না যে মাটির নিচে থাকতে হবে।’ বিষয়টি নিয়ে মজা নিচ্ছেন মন্ত্রিসভার কোনো কোনো সদস্য।

সোমবার পর্যন্ত ইসরাইলে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৩৪৭। এদের ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৯৫ জনের অবস্থা গুরুতর।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply