চিকিৎসা নিতে গিয়ে ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের উদ্দেশে যা বললেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

|

করোনার প্রকোপের কারণে বিশ্বজুড়ে চলছে লকডাউন। প্রতিবেশী ভারতের সাথেও যোগাযোগ আপাতত বন্ধ বাংলাদেশের। এ অবস্থায় চিকৎসার জন্য ভারতে গিয়ে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা আতঙ্কে দিন পার করছেন। তাদের উদ্দেশে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। সেখানে তাদের ফিরিয়ে আনার আগ পর্যন্ত ভারতে যেন সুব্যবস্থা করা যায় সে উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন তিনি।

নিচে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

“ভারতে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ।

আমরা শুনতে পাচ্ছি চিকিৎসা নিতে গিয়ে সেখানে কিছু বাংলাদেশী আটকা পড়েছেন এবং তাদের থাকতে অসুবিধা হচ্ছে। আমাদের দূতাবাস ইতিমধ্যে একটি প্রাথমিক তালিকা প্রস্তুত করেছেন, যারা এখনও জানাননি,

আপনাদের অনুরোধ করছি, আপনারা একসাথে কতজন, কোথায় আছেন, নাম, বয়স, পাসপোর্ট নম্বর, যোগাযোগের জন্য মোবাইল নম্বর আমাদের দিল্লিতে অবস্থিত দূতাবাসে জানান। আমাদের দিল্লিতে দূতাবাসের টেলিফোন নম্বর 85955-52494 (অথবা মুম্বাই কন্সুলেট 98331 59936. যারা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন তাদের আবার জানানোর প্রয়োজন নেই।

পূর্ণ তালিকা পেলে আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে সুবিধা হবে। আপনাদেরকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনতে না পারা পর্যন্ত অন্তত আমরা চেস্টা করবো স্থানীয় কর্তৃপক্ষ যেন আপনাদের চাহিদার বিষয়গুলো দেখভাল করেন।

আর যারা ফিরে আসতে চান তাদেরকে আশকোনা হাজি ক্যাম্পে এবং যারা চিকিৎসাধীন তারা কুর্মিটোলা বা অন্য হাসপাতালে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার সম্মতি দিতে হবে।”









Leave a reply